শনিবার ১৯ জুন ২০২১
Online Edition

বাংলাদেশে একাডেমি করতে চায় আইপিএলের দল রাজস্থান রয়্যালস

স্পোর্টস রিপোর্টার : মিরপুরের হোম অব ক্রিকেট দেখতে এসেছেন আইপিএলের প্রথম চ্যাম্পিয়ন দল রাজস্থান রয়্যালসের কর্তাব্যক্তিরা। গতকাল শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের মাঠ ও অন্যান্য সুবিধাদি ঘুরে দেখেন তারা। বাংলাদেশে রয়্যাল একাডেমি নামে একটি একাডেমি তৈরি করতে চায় এই দলটি। পরিদর্শনকালে দলটির সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা। এদের মধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সিইও নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন, গ্রাউন্ডস অ্যান্ড ফ্যাসিলিটিস বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার সৈয়দ আব্দুল বাতেনসহ আরো অনেকে তাদের সঙ্গে হোম অব ক্রিকেট মিরপুরের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধাদি ঘুরে ঘুরে দেখেছেন। স্টেডিয়াম পরিদর্শন শেষে তারা তাদের সন্তুষ্টির কথা বিসিবিকে জানিয়েছেন। একই সঙ্গে তারা জানিয়েছেন বাংলাদেশে রয়্যাল একাডেমি নামে একটি একাডেমি তৈরি করতে চায়। অবশ্য বিসিবি আগে থেকেই জানতো যে রাজস্থান রয়্যালস মিরপুর ভেন্যু পরিদর্শন করবে এবং তদানুযায়ী সকল ধরনের আয়োজন নিয়েই রেখেছিল টাইগার ক্রিকেট প্রশাসন। রাজস্থান রয়্যালসের চেয়ারম্যান রঞ্জিত বারঠাকুর ও তার প্রতিনিধি দল এলে শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রেসিডেন্টস বক্স থেকে শুরু করে যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা তাদের ঘুরিয়ে দেখান বিসিবি কর্মকর্তারা। ভালো খবর হলো দেশের হোম ভেন্যু দেখে তারা বেশ তুষ্ট। জানা গেছে, ২০২১ সালের আইপিএলের মূল আসরে নামার আগে প্রস্তুতি ক্যাম্প হিসেবে শেরেবাংলা স্টেডিয়াম কেমন হয়, সেটি দেখতেই এসেছেন ফ্র্যাঞ্চাইজিটির কর্মকর্তারা। রাজস্থান রয়্যালসের মাঠ পরিদর্শন প্রসঙ্গে বিসিবির এক পরিচালক বলেছেন, ‘মিরপুরে মাঠ দেখতে এসেছে ওদের (রাজস্থান রয়্যালস) প্র্যাকটিস ভেন্যুর জন্য। অন্য কিছুর জন্য নয়। এখানে আইপিএলের ভেন্যুর কোনও সম্ভাবনা নেই।’ বিসিবি’র গ্রাউন্ডস অ্যান্ড ফ্যাসিলিটিস বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার সৈয়দ আব্দুল বাতেন জানালেন,‘এটা রাজস্থান রয়্যালসের পূর্ব নির্ধারিত একটি পরিদর্শন ছিল। তারা আসবে আমরা আগে থেকেই জানতাম। তো তারা আমাদের শের-ই-বাংলার প্রেসিডেন্টস বক্স থেকে শুরু করে যাবতীয় সুবিধাদি ঘুরে ঘুরে দেখেছে। দেখে খুবই খুশি তারা।’ এদিকে ভেন্যু পরিদর্শন শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রাজস্থান রয়্যালস চেয়ারম্যান রঞ্জিত জানালেন, বাংলাদেশে রয়্যাল একাডেমি প্রতিষ্ঠা করতে করতে চান। তিনি বলেন,‘বাংলাদেশে আমরা একটি একাডেমি করতে চাই। যার নাম হবে রয়্যাল একাডেমি। যদিও এটি এখনো ভাবনার মধ্যে আছে। তবে পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমরা উদগ্রীব হয়ে আছি। আমি বাংলাদেশ ক্রিকেটকে সবসময়ই সমর্থন দিয়ে গেছি। ১৯৮৭ সালে বাংলাদেশে আয়োজিত এশিয়া কাপে আমি যুক্ত ছিলাম, আমি স্পন্সর করেছি। আমি আবারও বাংলাদেশে আসতে পেরে আমি খুবই খুশি। দ্বিতীয়ত, আমরা কিভাবে বাংলাদেশের জেলা এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাগুলোর মধ্যে কো-অপারেশন করতে পারি এবং কিভাবে আমরা এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামগুলো করতে পারি সেটা দেখতেই আমি এখানে স্টেডিয়াম পরিদর্শনে এসেছি। আমি রাজস্থান রয়্যালসের চেয়ারম্যান হওয়াতে গর্ববোধ করি। আমি নাফিসকে (নাফিস ইকবাল) নিয়েছি, মুস্তাফিজকে নিয়েছি। আশা করি সে আমাদের হয়ে খেলবে, যদিও তার দেশের দায়িত্ব আগে, এরপর রাজস্থান রয়্যালস।’ আইপিএলের কোনও দলের মিরপুর স্টেডিয়াম পরিদর্শনের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। এর আগে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কর্তাব্যক্তিরাও দেখতে এসেছিলেন বাংলাদেশের হোম অব ক্রিকেট। আইপিএল প্রস্তুতিতে মিরপুর স্টেডিয়ামকে ব্যবহার করা যায় কিনা, সেটি পর্যবেক্ষণ করতেই তাদের আসা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ