বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

জয়পুরহাট পৌর নির্বাচনে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে জগ মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসিবুল আলম লিটন

মেয়র প্রার্থী হাসিবুল আলম লিটন

জয়পুরহাট সংবাদদাতা: জয়পুরহাট পৌর নির্বাচন ২৮ ফেব্রুয়ারি। শেষ মহূর্তে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে জগ মার্কা নিয়ে বিগত পৌর নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী জামায়াত নেতা জয়পুরহাট সরকারি কলেজের সাবেক এজিএস, সদর উপজেলার সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান হাসিবুল আলম লিটন ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। বৃহস্পতিবার একযোগে ৯টি ওয়ার্ডে পুরুষ-মহিলা সহ একাধিক দল এবং প্রার্থীর সঙ্গে একটি ভিআইপি দলের বহর নিয়ে জগ মার্কার সমর্থন আদায়ে দিনব্যাপী গণসংযোগ করছে তার সমর্থকরা। মার্কা বের হওয়ার পর থেকে গণসংযোগ, পথসভা, উঠান বৈঠকসহ সকাল-সন্ধ্যা ব্যাপক গণসংযোগ অব্যাহত রেখেছে হাসিবুল আলম লিটন। 

ভোট নিয়ে সাধারণ ভোটার আব্দুল ওয়াহেদ, লুৎফর রহমান, খোকন আলী, আব্দুল হাকিম, নাজমা বেগম, নুরুন্নাহার, নাসরিন সুলতানাসহ একাধিক ভোটারদের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, সদর উপজেলার সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান হাসিবুল আলম লিটন দীর্ঘ ৫ বছর সততার সাথে জনসেবা করেছে। সে জয়পুরহাট সরকারি কলেজের সাবেক এজিএস ও ছিল এছাড়াও স্বাস্থ্যসেবাসহ বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক কর্মকা-ে তার অবদান রয়েছে। এ জন্য আমরা মনে করি সৎ যোগ্য তরুণ ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে তার জগ মার্কায় ভোট দিব। 

ভোটাররা আরো জানান, অন্যান্য প্রার্থীদের নির্বাচনের সময়ে উন্নয়ন আর কাজের প্রতিশ্রুতি বরাবরই দিয়ে থাকে, কিন্তু তারা নির্বাচিত হওয়ার পর সেসব প্রতিশ্রুতি আর রক্ষা করে না। এ জন্য আমরা নাগরিক সেবা থেকে অনেক সময় বঞ্চিত হয়। তাই এই সব দিক বিবেচনায় পৌরবাসী হিসেবে আমাদের অধিকার নাগরিক সেবা পেতে সৎ যোগ্য ও জনদরদী প্রার্থীকেই বেছে নিব এবং যাকে আমরা সুখে-দুঃখে সব সময় কাছে পাবো এমন নেতা নির্বাচিত করতে চাই।

এদিকে সচেতন পৌরবাসীর ১০ দফা দাবি পৌরসভার পরিকল্পিত মাষ্টার প্লান তৈরি করে আধুনিক শহর গঠন, যানজট নিরেসন, শহর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও পৌর শহরের বনায়ন কর্মসূচীসহ এ ১০ দফা দাবির প্রতি পূর্ণসমর্থন করা ছাড়াও প্রথম শ্রেণি পৌরসভা হিসেবে মডেল পৌরসভা গঠন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং পৌর নাগরিকদের বিশেষ সেবা ব্যবস্থার অঙ্গীকার করে হাসিবুল আলম লিটন ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছেন।

জয়পুরহাট পৌরসভার মানুষ চান সৎ, যোগ্য ও জনদরদী প্রার্থী নির্বাচিত হয়ে আসুক। যাতে এলাকার উন্নয়ন হয়। তবে ভোটের দিন কি হবে, আর কে হবেন পৌরপিতা তা জানার জন্য সকলকে অপেক্ষা করতে হবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির রবিবার ভোট গণনা পর্যন্ত। জয়পুরহাট পৌরসভার নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ হবে।

অনেকে বলছেন ভোটের দিন ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ থাকবে কিনা। ভোট দিতে পারবো কিনা। তবে সবার আশা ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হোক।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ