সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

ভ্যাকসিন নেয়ার ১২ দিন পর করোনায় আক্রান্ত হলেন ত্রাণ সচিব

 

স্টাফ রিপোর্টার : ভ্যাকসিন নেয়ার ১২ দিন পর কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো. মোহসীন। বর্তমানে তিনি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. সেলিম হোসেন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে করোনার টিকা নিয়েছিলেন ত্রাণ সচিব। ১৯ ফেব্রুয়ারি নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা পজিটিভ আসে। 

মো. সেলিম হোসেন জানিয়েছেন, করোনার লক্ষণ দেখা দেয়ায় পরীক্ষার জন্য গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সচিব মহোদয় নমুনা দেন। ১৯ ফেব্রুয়ারি রিপোর্ট পজিটিভ আসে। পরে শ্বাসকষ্ট ও অক্সিজেন সেচুরেশন কমে যাওয়ায় তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ তার শ্বাসকষ্ট কিছুটা কমেছে। অক্সিজেন সেচুরেশনও ভালো। তবে বেশি কাশি রয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেছেন, ত্রাণ সচিবের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি এখনও তাদের জানা নেই। তবে টিকা নেয়ার পরও সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা সবার ক্ষেত্রে শতভাগ দূর হয় না। ডা. নাসিমা বলেন, ‘টিকা দিলে ট্রান্সমিশন কমে যাবে। কমানোর জন্যই টিকা দেয়া। তবে সংক্রমণ হতে পারে। কারণ টিকা শতভাগ কার্যকর হবে এমন কথা তো কোনও টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানই বলেনি।’

গত ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে একযোগে শুরু হয়েছে করোনা ভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম। গত ২৭ জানুয়ারি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের একজন নার্সকে করোনা ভাইরাসের টিকা দেয়ার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে বহুল প্রতীক্ষিত টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন এবং প্রথম ৫ জনকে টিকা দেয়া দেখেন। সব মিলিয়ে উদ্বোধনী দিনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ২৬ জনকে টিকা দেয়া হয়। 

বাংলাদেশে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভাইরাসের টিকা দেয়া হচ্ছে। সবাইকে এ টিকার দুটি করে ডোজ নিতে হবে। অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানিয়েছিল, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে তাদের এ টিকা নিরাপদ প্রমাণিত হয়েছে এবং ৭০ শতাংষ স্বেচ্ছাসেবীকে কার্যকর সুরক্ষা দিতে পেরেছে।

করোনার এ টিকা গ্রহণের পর কারও কারও হালকা জ্বর, গা ব্যথা, ক্লান্ত অনুভবের মতো কিছু সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও এ নিয়ে আতঙ্ক কিংবা অস্বস্তির কিছু নেই- বলছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। আর বাংলাদেশে যারা টিকা নিয়েছেন তাদের মধ্যে এখন তেমন মারাত্মক কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে বলেও খবর পাওয়া যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ