সোমবার ০১ মার্চ ২০২১
Online Edition

আন্দামান সাগরে ‘মহাবিপদে’ রোহিঙ্গা-ভর্তি নৌযান

২২ ফেব্রুয়ারি, বিবিসি বাংলা, রয়টার্স : রোহিঙ্গা শরণার্থী ভর্তি একটি নৌযান আটকা পড়েছে আন্দামান সাগরে। তাদের কাছে থাকা খাবার ও পানি ফুরিয়ে গেছে। ইতোমধ্যে মারা গেছেন বেশ কয়েকজন, দ্রুততম সময়ে উদ্ধার করা না হলে বাকিরাও ভয়াবহ পরিণতির শিকার হবেন বলে জানিয়েছে ইউএনএইচসিআর।

সোমবার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থাটি জানিয়েছে, নৌযানটির সবাই বাংলাদেশের কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে প্রায় ১০ দিন আগে যাত্রা শুরু করেন। তবে সেখানে মোট কতজন রোহিঙ্গা রয়েছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ইউএনএইচসিআর বলছে, নৌযানটিতে আটকে পড়া শরণার্থীদের শারীরিক অবস্থা খুবই শোচনীয়। তারা মারাত্মক পানিশূন্যতায় ভুগছেন। এরই মধ্যে বেশ কয়েক জন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও কয়েকজনের প্রাণহানি হতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নৌযানটিতে থাকা রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, কয়েক দিন আগেই তাদের সঙ্গে থাকা খাবার এবং পানি শেষ হয়ে গেছে। সপ্তাহখানেক আগে নৌযানটির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর থেকেই সেটি সাগরে ভাসছে।

নৌযানটির অবস্থান নিশ্চিত হতে পারেনি ইউএিএইচসিআর। তবে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে ভারতীয় কোস্ট গার্ডের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, নৌযানটি শনাক্ত করা হয়েছে। কিন্তু নৌযানে থাকা রোহিঙ্গাদের সবশেষ অবস্থা নিশ্চিত নয়।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার কর্মকর্তা ক্যাথরিন স্টাবারফিল্ড জানান, সবশেষ সোমবার ভোরের দিকে নৌযানটির সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়েছে। নৌযানে থাকা শরণার্থীদের জরুরি সহায়তা প্রয়োজন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ