বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
Online Edition

দেশের সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রচলনে জাতীয় শিক্ষা নীতিতে দিকনির্দেশনা থাকা দরকার

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কে. এম গোলাম মহিউদ্দীন বলেছেন, দেশের সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রচলনে জাতীয় শিক্ষা নীতিতে দিকেির্দশনা থাকা দরকার। একটা স্ট্র্যাটেজি থাকা উচিত। বাংলা ভাষাকে সর্বস্তওে প্রচলনের জন্য কৃষক, শ্রমিক ও তরুণ সমাজকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি আরও বলেন ভাষার সাথে রাজনীতির সম্পর্ক রয়েছে। ভাষার অবাধ বিকাশের জন্য অবাধ গণতন্ত্র থাকতে হয়।
গত ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর দিনব্যাপী অমর একুশে কর্মসূচী ২০২১ এর  এক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর কে. এম গোলাম মহিউদ্দীন এসব কথা বলেন। আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদীর সভাপতিত্বে অনুিষ্ঠত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার বিশেষ অতিথি ছিলেন আইআইইউসি ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ। নির্ধারিত অতিথি আলোচক হিসাবে বক্তব্য রাখবেন আইআইইউসি’র বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আকতার সাঈদ। এ ছাড়াও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন আইআইইউসি’র প্রক্টর মোস্তফা মনির চ্যেধুরী, ফিমেল একাডেমিক জোন ইনচার্জ ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সালমা হক এবং ভারপ্রাপ্ত পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান। স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ ও কবি চৌধুরী গোলাম মাওলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা পর্বে স্বাগতঃ বক্তব্য রাখেন দাওয়া এন্ড ইসলামিক স্টাডীজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ আমিনুল হক। অনুষ্ঠানে আবৃত্তি পরিবেশন করেন, ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ ইকবাল হোসেন।প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইআইইউসি’র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কে. এম গোলাম মহিউদ্দীন বলেন, আমাদের দেশে ভাষা নিয়ে কোন বিরোধ নেই। আমাদের দেশের ঐক্যেও বড় ভিত্তি হচ্ছে ভাষা, সংস্কৃতি, ধর্ম ও অর্থনীতি। আমরা ভাষার মাধ্যমে বিভিন্ন অধ্যুষিত এলাকা চিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইআইইউসি ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ বলেন, মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে সব জাতিকে উত্তম ভাষা ব্যবহারের উপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। প্রাঞ্জল ভাষায় কথা বলা রাসূল (সাঃ) এর আদর্শ। ভাষার বৈচিত্র্য আল্লার অনুপম নিদর্শন। িিতনি বলেন, মাতৃভাষার জন্য শাহাদাৎ বরণ পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল ঘটনা। কিন্তু যে চেতনা, আবেগ ও প্রেরণা নিয়ে ভাষা আন্দোলন হয়েছিল এখন তার প্রতিফলন নেই। আমরা পরবর্তী প্রজন্মকে হিন্দি ভাষা ও সংস্কৃতির কাছে নির্বিচারে বিকিয়ে দিয়েছি।
সভাপতির বক্তব্যে আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদ বলেন, আমরা ভাষার ভিন্নতার কারণে ভৌগলিক অবস্থান চিনি। আমরা কেউ ইংরেজীতে স্বপ্ন দেখিনা, বাংলায় স্বপ্ন দেখি। প্রত্যেক জাতির কাছে তার মাতৃভাষার মর্যাদা অনেক বেশি। মহান একুশ আমাদের গৌরবের একটি উজ্জ্বলতম অধ্যায়। বাংলা ভাষায় কথা বলার অধিকার হরণের কারণেই মহান ভাষা আন্দোলন হয়েছিল। জাতীয় ইতিহাসে এটি একটি বড় অর্জন্।  
গতকাল দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল ফজর নামাজের পর আইআইইউসি কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদ স্মরণে দোয়া অনুষ্ঠান, সকাল সাড়ে ৬ টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণ, ৬ট:৪৫ টায় ক্যাম্পাসে নিজস্ব শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং আলোচনাপর্ব শেষে শহীদদের স্মরণে দোয়া ও মুনাজাত। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন দাওয়া এন্ড ইসলামিক স্টাডীজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ আমিনুল হক। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ