বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১
Online Edition

আব্দুল্লাহর গোলে জয়ের ধারায় শেখ রাসেল

স্পোর্টস রিপোর্টার: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে ২০১২-১৩ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্টিত ম্যাচে তারা ১-০ গোলে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটিকে হারিয়েছে। প্রতিদ্বন্ধিতাপূর্ণ ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য ড্র ছিল। বিজয়ী দলের পক্ষে আক্রমনভাগের বিদেশী ফুটবলার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ একমাত্র জয়সূচক গোলটি করেন। নিষ্প্রাণ প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধে দৃষ্টিনন্দন সাইড ভলিতে জাল খুঁজে নিলেন মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। ম্যাচের শুরু থেকে বলের নিয়ন্ত্রণে মনোযোগী দুই দল প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে তেমন কোনো পরীক্ষাই নিতে পারেনি। শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ওবি মোনেকে কয়েকবার আক্রমণে উঠলেও শট লক্ষে রাখতে পারেননি। রহমতগঞ্জের ভাসিয়েভ-রেমিও ছিলেন ছায়া হয়ে।সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ১-১ ড্র করে লিগ শুরু করা রহমতগঞ্জ ম্যাড়মেড়ে প্রথমার্ধে প্রথম ভালো সুযোগটি পায় ৩৮ মিনিটে। কিন্তু দিলসভ ভাসিয়েভের ক্রস ধরে সুহেল মিয়া উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন সমর্থকদের।

পরের মিনিটে প্রতিআক্রমণ থেকে সুযোগ পেয়েছিল ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ২-১ গোলে হারিয়ে লিগে শুভসূচনা করা শেখ রাসেল। কিন্তু মোনেকের জোরালো শট পোস্টের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়।৬০ মিনিটে বখতিয়ার দুইশবেকভের ক্রসে আব্দুল্লাহর প্লেসিং দূরের পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যায়। ৭৪ মিনিটে অবশেষে গোলের অপেক্ষা ফুরায় শেখ রাসেলের। দুইশবেকভের কর্নারে আব্দুল্লাহর নিখুঁত সাইড ভলি চোখের পলকে জালে জড়ায়। ব্রাদার্সের বিপক্ষে দলের জেতা ম্যাচেও প্রথম গোলটি করেছিলেন এই মিডফিল্ডার।

পিছিয়ে পড়ার পর রহমতগঞ্জ যেন খেই হারিয়ে ফেলে। শেখ রাসেলের রক্ষণ ভেঙ্গে গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাকে তেমন কোনো চ্যালেঞ্জই জানাতে পারেনি তারা।৮৮ মিনিটে সতীর্থের ক্রসে ক্রিস রেমির হেড ক্রসবারের উপর দিয়ে গেলে রহমতগঞ্জ পায়নি সমতায় ফেরা গোলের দেখা। লিগে প্রথম হারের তেতো স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়ে সৈয়দ গোলাম জিলানীর দল।লিগের দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে শেখ রাসেল কেসির সংগ্রহ ৬ পয়েন্ট আর রহমতগঞ্জের ১ পয়েন্ট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ