ঢাকা, শনিবার 23 January 2021, ৯ মাঘ ১৪২৭, ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

গোপনে সৌদি সফর করলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু রবিবার গোপনে সৌদি আরব সফর করেছেন বলে ইসরায়েলের গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে।

বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, নেতানিয়াহু সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান এবং যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে বৈঠক করেছেন।তবে কোনো পক্ষই এখনো এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেনি।

ওয়াশিংটন পোস্ট বলছে, এই খবর সত্যি হলে এটি হবে ঐতিহাসিকভাবে বৈরি দেশদুটির মধ্যে প্রথম কোনো বৈঠক যার খবর প্রকাশ্যে এলো। একই সঙ্গে প্রথম কোনো ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব সফরও বটে এটি।ওই বৈঠকে ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ছিলেন বলেও জানা যাচ্ছে।

ইসরায়েলি সরকারের সোর্সের উদ্বৃতি দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম হারেৎজ বলছে, এই সফরের ব্যাপারে ইসরায়েলের বিকল্প প্রধানমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীও অন্ধকারে ছিলেন।

যদিও একটি টুইট বার্তায় ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা এই বৈঠক হয়েছে বলে আভাস দিয়েছেন। তবে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো পক্ষই এ ব্যাপারে কিছু জানায়নি।

ইসরায়েলি সংবাদ মাধ্যমে ওয়াইনেটের বরাত দিয়ে দি ওয়াশিংটন পোস্ট লিখেছে, সৌদি আরবের উপকূলীয় শহর নিওমে রবিবার বিকালের দিকে কয়েক ঘণ্টা অতিবাহিত করেছেন বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। এই সময় তার সঙ্গে ইসরায়েলি গুপ্তচর বাহিনীর প্রধান ইয়োসি কোহেন ছিলেন। সেখানে তিনি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান আর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও-র সঙ্গে বৈঠক করেন।

হারেৎজ-এর খবর বলছে, বিমান চলাচলের তালিকায় দেখা যাচ্ছে, ইসরায়েল থেকে একটি বিমান সরাসরি সৌদি মেগা-সিটি নিওমে গিয়েছে। পাঁচ ঘণ্টা পরে সেটা আবার ফেরত এসেছে।

অনেকদিন ধরেই ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন চেষ্টা করছে যাতে ইসরায়েলের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক স্বাভাবিক হয়ে ওঠে।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের চেষ্টায় গত অগাস্টে সংযুক্ত আরব আমিরাত আর বাহরাইন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নিয়েছে। তারা বাণিজ্য চালু করা, নিরাপত্তা ও পর্যটনের ক্ষেত্রে সহযোগিতার জন্য একটি সমঝোতা করেছে। ওই সমঝোতাকে প্রতারণা বলে বর্ণনা করেছে ফিলিস্তিনি নেতারা।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ