রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

ছাত্র জমিয়তের নব নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে ছাত্রশিবিরের অভিনন্দন

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ এর নব নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে অভিনন্দন জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। গতকাল শনিবার দেয়া যৌথ অভিনন্দন বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ সিরাজুল ইসলাম ও সেক্রেটারি জেনারেল সালাহউদ্দিন আইউবী, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ এর ২০২০-২১ সাংগঠনিক সেশনের জন্য নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় সভাপতি সুহাইল আহমদ, সেক্রেটারি জেনারেল নিজাম উদ্দিন আল আদনান ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ আহমদকে শুভেচ্ছা ও প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের ছাত্রআন্দোলনে ছাত্র জমিয়ত এর গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান ও ভূমিকা রয়েছে। ব্যক্তি গঠন, ইসলামি শিক্ষা ও সমাজব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার  লক্ষ্যে ১৯৯২ সালের ২৪ জানুয়ারী প্রতিষ্ঠিত হয় সংগঠনটি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে জাতিকে আলেম-ওলামা, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পর্যায়ে যোগ্যতা সম্পন্ন কাঙ্খিত নেতৃত্ব উপহার দিয়েছে; যারা দেশ ও জাতির জন্য খেদমত করে যাচ্ছেন। আমরা প্রত্যাশা করি নতুন নেতৃত্ব ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ এর চলমান গঠনমূলক কার্যক্রমসমূহকে আরো গতিশীল ও সমুন্নত  করতে ভূমিকা রাখবেন, ইনশাআল্লাহ। ইসলাম, তাহজীব তামাদ্দুন ও দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব যখন হুমকির সম্মুখীন, দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা যখন বিপন্নপ্রায়, দেশের তরুণ সমাজ যখন নৈতিক দিক থেকে বিপদগ্রস্ত তখন তাঁরা ইসলাম, দেশ ও ছাত্রসমাজের জন্য গঠনমূলক কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে সংগঠনের সামগ্রিক কার্যক্রম এগিয়ে নিবেন। শিবির নেতৃবৃন্দ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে আরও বলেন, এই সাহসী নেতৃত্ব কুরআন ও সুন্নাহর আলোকে বাংলাদেশের ছাত্রসমাজকে গড়ে তুলতে সকল বাধা বিপত্তি উপেক্ষা করে এগিয়ে যাবেন; মুসলিম উম্মাহর ঐক্য ও সংহতি প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন। দেশের স্বাধীনতা- সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দেশপ্রেমিক ইসলামী ছাত্রসংগঠনগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাবে ইনশাআল্লাহ।
ছাত্রশিবির নেতৃবৃন্দ ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ-এর নির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সুস্থতা এবং ইহকালীন ও পরকালীন সাফল্য কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ