শনিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

প্রস্তুতি ম্যাচের প্রতিপক্ষ এখনো চূড়ান্ত হয়নি জামাল ভূঁইয়াদের

 স্পোর্টস রিপোর্টার : বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব খেলতে বর্তমানে কাতারে অবস্থান করছে বাংলাদেশ ফুটবল দল। সেখানে টিম ম্যানেজার আমের খান ও ফিজিওথেরাপিস্ট ফুয়াদ হাসান হাওলাদার আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। তাই বাড়তি সচেতনতা পালন করা হচ্ছে লাল-সবুজ শিবিরে। গতকাল শনিবার সকালে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে সফরকারী দলকে। এরপরই তিন গ্রুপে ভাগ হয়ে জিম করেছে জামাল ভূঁইয়া নেতৃত্বাধীন দলটি। কাতার থেকে এদিন ভিডিও বার্তা দিয়েছেন সহকারী কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস ও ডিফেন্ডার তপু বর্মণ। তপু বর্মণ বলেন, ‘শুক্রবার রুমে আমাদের সেশন দেয়া হয়েছিল। সেগুলো পালন করেছি। 

গতকাল শনিবার সকালে করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এর পর তিন গ্রুপে ভাগ হয়ে আমরা জিম করেছি। সবার দোয়ায় করোনা নেগেটিভ হলেই আমরা মাঠের অনুশীলনে ফিরবো।’ এদিকে দলের ভারপ্রাপ্ত কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস জানান, করোনা হানা দিলেও পরিস্থিতি ঠিকই আছে। তিনি বলেন, ‘আজ (শনিবার) কোডিভ টেস্ট করা হয়েছে। আজকেই (শনিবারই) খেলোয়াড়রা জিমে নিজেদের প্রথম ট্রেনিং শুরু করেছে। ফিটনেস কোচ তাদের সব বুঝিয়ে দিয়েছে। এখন ফিটনেস নিয়েই সবাই কাজ করছে। তিনদিনের কোয়ারেন্টিন শেষ হলেই আমরা মাঠে ফিরবো। এখনও পর্যন্ত সব ঠিকই আছে।’ এদিকে ঢাকায় নেপালের বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজ খেলার পরও কাতারের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে শক্তিশালী দলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার চেষ্টা করেছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। বাফুফে চেয়েছিল কাতারের শীর্ষ লিগের (স্টারস লিগ) দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে। তবে বর্তমানে স্টারস লিগ চলমান থাকায় সে সম্ভাবনা কমে গেছে। কাতার ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ইতোমধ্যে বাংলাদেশের দুটি প্রস্তুতি ম্যাচের দিন ঠিক করেছে ২৫ ও ২৮ নবেম্বর। তবে দল এখনও ঠিক করতে পারেনি। স্টারস লিগের দল না পাওয়ায় কাতার তাদের দ্বিতীয় বিভাগ লিগের দুটি ক্লাবের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার ব্যবস্থা করবে। দুই একদিনের মধ্যেই কয়েকটি প্রতিপক্ষের নাম জানাবে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টকে। তার মধ্যে থেকে বাংলাদেশ দুটি দলের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে। প্রস্তুতি ম্যাচের দল চূড়ান্ত না হলেও তারিখ ও ভেন্যু ঠিক করা হয়েছে। দুটি প্রস্তুতি ম্যাচই বাংলাদেশ খেলবে কাতারের অত্যাধুনিক অ্যাসপেয়ার একাডেমিতে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ