রবিবার ০২ অক্টোবর ২০২২
Online Edition

কবি ফররুখ আহমদের মৃত্যু বার্ষিকীর পালিত

মাগুরা সংবাদদাতা: গুনিজনের মূল্যায়ন না করলে গুনিজন সৃষ্টি হবেনা। আগামী প্রজন্মকে গুনি মানুষ হিসেবে তৈরী করতে হলে গুনিজনকে মূল্যায়ন করতে হবে। মুসলিম রেনেসাঁর কবি ফররুখ  আহমেদের ৪৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোযা মাহফিলে প্রধান অতিািথর বক্তব্যে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এড. সাইফুজ্জামান শিখর এ কথা বলেন। ২৩ অক্টোবর শুক্রবার বিকেলে সৈয়দ রিপন আহমেদের সভাপতিত্বে উক্ত দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা -১ আসনের  সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড .আশরাফুল আলম। মাঝাইল মান্দারতলা ঈদগাহ ময়দানে ফররুখ আহমেদ স্মতি পাঠাগার এ কর্মসুচি গ্রহন করে।
 এখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাগুরার পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান (পিপিএম) জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ফ ম আব্দুল ফাত্তাহ, মাগুরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুমার কুন্ডু সাধারণ সম্পাদক জেলা আওযামীলীগের শাখারুল  ইসলাম শাকিল, শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ,মিয়া মাহমুদুল  গনি শাহীন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইযাসিন কবির, শ্রীপুর উপজলো আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আবুল কালাম আজাদ , সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমাউনুর রশিদ মুহিত।
আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম শ্রেষ্ট কবি ফররুখ আহমদ ১৯১৮ সালের ১০জুন মাগুরা জেলার মাঝাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম সৈয়দ হাতেম আলী। মাতা বেগম রওশন আখতার।
১৯৩৭ সালে খুলনা জিলা স্কুল থেকে তিনি ম্যাট্রিক এবং ১৯৩৯ সালে কলকাতার রিপন কলেজ থেকে আইএ পাস করেন। পরে স্কটিশ চার্চ কলেজে দর্শন এবং ইংরেজি সাহিত্যে ভর্তি হলেও পরীক্ষা না দিয়েই তিনি কর্মজীবনে প্রবেশ করেন।
১৯৪৫ সালে মাসিক ‘মোহাম্মাদী’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও স্থায়ীভাবে চাকরি করতেন ঢাকা বেতারে।
১৯৪২ সালের নভেম্বরে খালাতো বোন সৈয়দা তৈয়বা খাতুন লিলিকে বিয়ে করেন তিনি। কবি ফররুখ আহমেদ বাংলা সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বাংলা অ্যাকাডেমি পদক, ইউনেস্কো পদক ও মরণোত্তর একুশে পদক লাভ করেন। ১৯৭৪ সালের ১৯ অক্টোবর ঢাকায় স্বনামধন্য এই কবির মৃত্যু হয়।
প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য এড, সাইফুজ্জামান শি খর কবির স্মৃতিচারণ পূর্বক প্রতি বছর এ কর্মসুচি আয়োজনের আহবান জানিয়ে সাথে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, গুনিজনের মূল্যায়ন না করলে গুনিজন সৃষ্টি হবেনা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ