রবিবার ০২ অক্টোবর ২০২২
Online Edition

ডামুড্যায় হাত পা বাঁধা কিশোরীর লাশ উদ্ধার

শরীয়তপুর সংবাদদাতা : ডামুড্যায় হাত, পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় কাজল আক্তার (১৫) নামে এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে ডামুড্যা থানা পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সকালে শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের পশ্চিম কুলকুড়ির গ্রামের খাল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। কাজল আক্তার পশ্চিম কুলকুড়ি গ্রামের আলা উদ্দিন ছৈয়ালের মেয়ে। পুলিশ বলছেন, ধারনা করা হচ্ছে অজ্ঞাত দুস্কৃতকারীরা মেয়েটিকে হত্যা করে খালে ফেলে দিয়েছে। তবে ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া গেলে বিষয়টি জানা যাবে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে ডামুড্যা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।
ডামুড্যা থানা ও পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, কাজল আক্তার প্রায় রাতেই টিভি দেখার জন্য প্রতিবেশী ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ী যেতেন। গতকাল বুধবার রাতে খাবার শেষে টিভি দেখতে ওই বাড়ী যায় কাজল। গভীর রাত হওয়ার পরেও কাজল বাড়ী না ফেরায় তার বাবা আলা উদ্দিন ছৈয়াল কাজলকে ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ী গিয়ে কাজলকে পায়নি। এরপর রাতেই পরিবার ও প্রতিবেশীরা বিভিন্ন আত্নীয় স্বজনদের বাসায় অনেক খোঁজাখোঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশের খালের মধ্যে কাজলের পরিবারের লোকজন লাশ ভাসতে দেখে ডামুড্যা থানা পুলিশকে খবর দেন। বৃস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ