রবিবার ০২ অক্টোবর ২০২২
Online Edition

ফেনীতে করোনা টেস্ট ও শনাক্ত দুটোই কমেছে

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনী জেলায় করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ ও শনাক্তের সংখ্যা দুটোই কমেছে। জেলায় করোনার বিস্তার রোধে বেশি পরীক্ষা ও দ্রুত ফল পেতে জীন এক্সপার্ট মেশিন স্থাপন করা হলেও নমুনা পরীক্ষায় দিনদিন সাধারণ মানুষের আগ্রহ কমেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার ঘোষিত টানা ৬৬ দিনের ছুটি শেষে ১ জুন স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী অফিস আদালত ও সীমিত পরিসরে গণপরিবহন চালু হয়। এপ্রিল থেকে ৩১ মে পর্যন্ত জেলায় ১৮৩ জন করোনায় সংক্রমিত হলেও জুন মাসেই চারগুণ বেশি রোগী শনাক্ত হয়। এরপর জুলাই থেকে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত ক্রমেই নমুনা সংগ্রহের পরিমাণ অর্ধেকে নেমে এসেছে। সেই সাথে কমেছে শনাক্তও।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্র জানায়, চলতি মাসের ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত শুধুমাত্র ৪১৮ ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ হয়েছে। এর মধ্যে শনাক্ত হয়েছেন ৫৩ জন। পরিসংখ্যান বলছে, গত ৮ মার্চ দেশে করোনা শনাক্তের পর এপ্রিল মাস থেকে জেলায় নমুনা সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম মাসে ৩শ ৪৩ জনের নমুনা শনাক্ত হয়েছেন ৩ জন। পরবর্তী মে মাসে ১ হাজার ২শ ৯৯ ব্যক্তির নমুনায় শনাক্ত হয়েছেন ১শ ৮০ জন। জুনে প্রকৌপ বেড়ে গেলে ৩ হাজার ২শ ৭২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ওই মাসে ৭শ ১ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব মেলে। জুলাই থেকেই কমতে থাকে নমুনা ও শনাক্তের সংখ্যা। জুলাইয়ে ১ হাজার ৮শ ৪৭ জনের নমুনা সংগ্রহ ও শনাক্ত হয় ৩শ ৬২ জনের, আগস্টে ১ হাজার ৫শ ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ ও ৩শ ৪৯ জনের শনাক্ত এবং সেপ্টেম্বর মাসে ১ হাজার ৬শ ২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ ও ১শ ৬৬ জনের শনাক্ত হয়। চলতি মাসের দুই সপ্তাহে ৪শ ১৮ জনের নমুনা সংগ্রহ ও ৫৩ জনের শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে সিভিল সার্জন ডা: সাজ্জাদ হোসেন সহ জেলাজুড়ে আক্রান্ত হয়ে ৪০ জন মারা গেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ