মঙ্গলবার ২৪ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

বাফুফে ও বসুন্ধরা কিংসের মধ্যে সমঝোতা

স্পোর্টস রিপোর্টার : অবশেষে জাতীয় দলের ক্যাম্পে খেলোয়াড় ছাড়া নিয়ে বাফুফে ও বসুন্ধরা কিংসের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে। নেপালের বিপক্ষে দুই ম্যাচের জন্য যে ৩৬ ফুটবলার ডাকা হয়েছে আবাসিক ক্যাম্পে তাদের মধ্যে ১৪ জন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের। বৃহস্পতিবার বসুন্ধরা কিংস থেকে বাফুফেকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছিল, তারা ১ সেপ্টেম্বর থেকে প্রস্তুতি শুরু করেছে। এখন খেলোয়াড়রা ছুটিতে আছেন। তাই ৯ নভেম্বরের আগে তাদের খেলোয়াড়রা ক্যাম্পে যোগ দিতে পারবেন না।  চোটগ্রস্ত মাসুক মিয়া জনি ও মতিন মিয়াকে ক্যাম্পেই ছাড়বে না বসুন্ধরা কিংস। বাফফের ন্যাশনাল টিমস কমিটি বসুন্ধরা কিংসের সাথে আলোচনা করে ফুটবলারদের ছুটি কমিয়ে আনা হয়েছে। বসুন্ধরা কিংসের ১৪ ফুটবলারের মধ্যে জনি ও মতিন ছাড়া বাকি ১২ জন জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দেবেন চারদিন পর ২৭ অক্টোবর। বাফুফে থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রথমে আবাসিক ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা ছিল প্যানপ্যাসিফিক  সোনারগাঁও হোটেলে। পরে ভেন্যু বদলে খেলোয়াড়দের আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে পল্টনের ফার্স হোটেলে। ৩৬ ফুটবলারের মধ্যে কিংসের ১৪ জন বাদ দিলে যে ২২ জন থাকেন, তাদের সবাইকেও প্রথম দিন থেকে পাচ্ছেন না সহকারী কোচ মাসুদ কায়সার পারভেজ। প্রবাসী দুই ফুটবলার জামাল ভূঁইয়া ও তারিক রায়হান কাজীর আসতে আরো কয়েকদিন সময় লাগবে। সমস্যা আছে আরো। খেলোয়াড়দের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করিয়ে নেগেটিভ ফল আসলে যোগ দিতে হবে। এই পরীক্ষা করা হয়েছে ফুটবলারদের উদ্যোগে। তবে গতকাল কয়েকজনের রিপোর্ট পাওয়ার কথা থাকলেও, পাননি বন্ধের কারণে। যারা রিপোর্ট হাতে পাননি তারা কোচকে জানিয়ে পরে ক্যাম্পে যোগ দেবেন। এদিকে দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ফুটবল দলের অনুশীলন নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে। ম্যাচ ভেন্যু বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের মাঠে অনুশীলন অসম্ভব হয়ে পড়েছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ