শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

৪৯ বছরের ইতিহাসে এত ধর্ষণ-নির্যাতন দেখিনি -মাহমুদুর রহমান মান্না

স্টাফ রিপোর্টার: দেশ স্বাধীনের ৪৯ বছরের ইতিহাসে এত পরিমাণ ধর্ষণ, নির্যাতন দেখেননি বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। 

গত শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম-৭১ আয়োজিত ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতি, ন্যায়বিচার এবং বর্তমান বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সংগঠনটির সভাপতি ঢালি আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। এ সময় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মান্না বলেন, মৃত্যুদণ্ড কোনও বিচারের সমাধান দিতে পারে না। আমি এটা সমর্থন করি না। সত্যিকারের বিচার হলে অবশ্যই খুন, গুম কমে আসতো। এখন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদ- করা হয়েছে। ধর্ষক তো ধর্ষণের পর এবার তাকে হত্যা করবে। এর মাধ্যমে ধর্ষক প্রমাণ মুছে ফেলবে। আমরা যদি বিচার করতে পারতাম, বিচারহীনতা থেকে সরে আসতে পারতাম, তবে অপরাধ কমে আসতো।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের এক মন্ত্রী বললেন, ক্রসফায়ার আমাদের সংস্কৃতি হয়ে গেছে। না, এটা হতে পারে না। এট অপসংস্কৃতি। বিনাবিচারে হত্যা কাম্য নয়। আর বিচার শব্দটিও হারাতে বসেছে। বিচারের নামে বিচারহীনতাকে বেচে নেয়া হয়েছে এখন। রাষ্ট্রীয় সংস্থাকে দলীয়করণ করে ভোট ডাকাতিতে ব্যবহার করা হয়। তাহলে কীভাবে ভালোর আশা করবেন। কীভাবে বিচার পাবেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগ বার বার ধর্ষকদের লালন-পালন করেছে, বড় করেছে। গত ১২ বছরে এ ধরনের শত শত সমস্যা তৈরি হয়েছে। একটিরও বিচার কেনো হলো না। কেনো সেই নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হলো না। সিলেটের এমসি কলেজ, নোয়াখালীর দেলোয়ার এরাতো সব দলীয় ক্যাডার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ