সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

রাজধানীতে বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রী হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর হাজারীবাগের বউবাজার এলাকার একটি বাসা থেকে সীমা খাতুন (৩০) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ ধারণা করছে, ওই নারীকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।
গতকাল রোববার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে হাজারীবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, শনিবার (১৭ অক্টোবর) দিনগত রাতে হাজারীবাগের বউবাজার রানা বেকারি গলির ৫৩/৩ এর নম্বর দোতলা থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। তার নাক দিয়ে হালকা রক্ত ও মুখে লালা দেখা গেছে। সীমার বুক-পেটে ও পিঠে চামড়ায় ছোপ ছোপ রক্ত জমাট বাঁধা, দুই হাতের আঙুলে ও নখে কালচে দাগ আছে।
তিনি জানান, স্বামী ও এক ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে ১৫ দিন আগে ওই বাসায় ভাড়া উঠেন ওই নারী। তার স্বামী একজন রিকশাচালক। ঘটনার পর থেকে স্বামী ও সন্তান কাউকেই ওই বাসায় পাওয়া যায়নি। বাসায় কোনো মালামালও পাওয়া যায়নি। তার স্বামীর নাম বাশিউর রহমান বলে জানতে পেরেছি।
প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ওই নারীর স্বামী তাকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সন্তানদের নিয়ে পালিয়ে গেছেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানান ওই এসআই।

হোটেল কক্ষে নারীর মৃতদেহ
কমলাপুরে হোটেল ইনসাফ থেকে এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার (১৮ অক্টোবর) মতিঝিল থানার উপপরিদশর্ক (এসআই) আব্দুল জলিল জানান, রাতে খবর পেয়ে কমলাপুর হোটেল ইনসাফের ৪র্থ তলার ২২৭ নম্বর কক্ষ থেকে ওই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
কক্ষের দরজা হালকা করে লাগানো ছিলো। আর বিছানার ওপর শোয়া অবস্থায় ছিলেন ওই নারী। তার পরনে শুধু পাজামা ছিল। শরীর ঢাকা ছিলো ওড়না দিয়ে। তার গলায় কালো গোল দাগ রয়েছে।
এসআই জানান, গত ১২ তারিখ আবুল কালাম ও তার ছেলে সিফাত শরিয়তপুর নড়িয়া থেকে ঢাকায় আসে ওই হোটেলের ২৩৪ নম্বর রুমে ওঠেন। তারা হোটেল ম্যানেজারকে জানান, কালামের স্ত্রী রাগ করে গ্রাম থেকে ঢাকায় চলে এসেছে। তাকে খুঁজতে তারাও ঢাকায় এসেছেন। এরপর ১৬ তারিখ তারা হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানান, তার স্ত্রীকে খুঁজে পাওয়া গেছে। এরপর তারা হোটেলের ২২৭ নম্বর কক্ষটি ভাড়া নেন। সবশেষ শনিবার হোটেল বয় ওই কক্ষ পরিষ্কার করতে গিয়ে দেখে খাটের ওপর অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন ওই নারী। পরে থানায় খবর দিলে তার মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।
ওই কর্মকর্তা জানান, ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। নিহত নারীর স্বামীকে আটক করার চেষ্টা চলছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ