শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

চীনে মানবাধিকার রক্ষায় কানাডার ভূমিকা অপরিবর্তিত থাকবে ----- ট্রুডো

১৮ অক্টোবর,  ইন্টারনেট : সম্প্রতি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো চীনা কর্তৃপক্ষের হংকংয়ে দমননীতি এবং উইঘুর মুসলিমদের আটকে রাখার তীব্র সমালোচনা করেন। দেশটিতে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত কং পেইউ বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে কানাডার বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করার পর জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, হংকংয়ে চীনের মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়ে নিজের অবস্থান পাল্টাবে না কানাডা। চীনে মানবাধিকার রক্ষায় কানাডার ভূমিকা অপরিবর্তিত থাকবে বলে জানিয়েছেন ট্রুডো। ২০১৮ সালে কানাডার সঙ্গে চীনের সম্পর্কের ব্যাপক অবনতি ঘটে। ওই বছরের ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের সিএফও মেং ওয়ানজৌকে গ্রেফতার করে কানাডা। এরপর পর থেকে তিক্ততার শুরু হয় দুই দেশের মধ্যে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা যে কোনো দেশেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে স্পষ্ট অবস্থান নেব। চীনে উইঘুরদের বিরুদ্ধে দেশটির সরকারি অবস্থান, হংকংয়ে চীনের ভূমিকা মানবাধিকার লঙ্ঘনের শামিল। আমরা তা সমর্থন করি না। বিশ্বজুড়ে মানুষের অধিকার রক্ষায় সব সময় উচ্চকিত আমরা। চীনের হুমকিকে ভয় পায় না কানাডা।

চীনের রাষ্ট্রদূত কং পেইউ কানাডায় হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থিদের আশ্রয় দেয়ার ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বৃহস্পতিবার অটোয়ায় বলেছেন, হংকংয়ে বসবাসকারী তিন লাখ কানাডিয়ানের জন্য এটা তাদের দেশের নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর অবস্থান নয়। এটা চীনের পছন্দ নয়।  এ কথার জবাবে ট্রুডো জানিয়ে দেন, চীনের কোনো ধরনের হুমকিতে বিচলিত হবে না কানাডা। জাস্টিন ট্রুডো সম্প্রতি আরও বলেছেন, চীন বিশ্বের অন্য দেশের নাগরিকদের পাশাপাশি দুই কানাডিয়ান নাগরিককেও বিনাবিচারে আটকে রেখেছে। এসব বিষয়ে কানাডা মিত্রদের সঙ্গে কাজ করবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ