বৃহস্পতিবার ২৬ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির তাগিদ

গতকাল শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি প্রঙ্গণে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইত্তেখার এসি পেট্রোল রমনা শাহবাগ থানা -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক আন্দোলনের মধ্যে এ বিষয়ে সমাবেশ করল পুলিশ। গতকাল শনিবার সকালে ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনবিরোধী সমাবেশের আয়োজন করে পুলিশ।
পুলিশ সদর দফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিটি ঘটনায় অপরাধীকে আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে পেশাদারিত্বের সাথে নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশের প্রতিটি সদস্য। “দেশজুড়ে বাংলাদেশ পুলিশের উদ্যোগে ৬ হাজার ৯১২টি বিট পুলিশিং এলাকায় গতকাল একযোগে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।”
সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট পুলিশিং এলাকার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত চলে সমাবেশ। এতে পুলিশ সদস্যরা তাঁদের পোশাক পরে অংশ নেন।
প্রতিটি বিট পুলিশিং এলাকায় আয়োজিত এই সমাবেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনবিরোধী পোস্টার, লিফলেট ও প্ল্যাকার্ড প্রদর্শনের মাধ্যমে জনসাধারণকে এসব অপরাধের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়। এ ধরনের ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে সচেতন হওয়ার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান পুলিশ কর্মকর্তারা।
সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির তাগিদ
পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনার সাজ্জাদুর রহমান বলেছেন, ধর্ষকদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। ধর্ষণ প্রতিরোধে পুলিশ তৎপর আছে। তবে তা ঠেকাতে সামাজিক সচেতনতা দরকার। গতকাল শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এলাকায় পুলিশের ধর্ষণবিরোধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।
টিএসসি এলাকায় দেখা যায়, বিভিন্ন ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে নারী-পুরুষ অংশ নেন। ‘নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বন্ধ করি, নারীবান্ধব দেশ গড়ি’, ‘বন্ধ হোক নারী নির্যাতন, নিশ্চিত হোক দেশের উন্নয়ন’ প্রভৃতি লেখা ব্যানার-ফেস্টুন দেখা যায় তাঁদের হাতে। সমাবেশে অংশগ্রহণকারীরা ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার ৫০ থানা এলাকায় অন্তত ৩০০ স্থানে সমাবেশ হয়েছে। রাজু ভাস্কর্যের সামনে স্থানীয় বাসিন্দা, শিক্ষক, ছাত্রলীগ কর্মী ও সাধারণ মানুষ সমাবেশে অংশ নেন।
সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আবদুর রহিম বলেন, ‘নির্যাতিত মা-বোনদের পাশে আমরা আছি। ইতোমধ্যে আইন সংশোধন করে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড করা হয়েছে। একটি মামলায় এরই মধ্যে ৫ জনের ফাঁসিও হয়েছে। এতে আমাদের মধ্যে আশার সঞ্চার করেছে। শিক্ষক হিসেবে আমরা বিবৃতি, বক্তব্যের মাধ্যমে জনমত সৃষ্টিতে কাজ করব।’
সমাবেশে অংশ নিয়ে গৃহিনী লাবণী আক্তার বলেন, পুলিশের সহযোগিতা অনেক জায়গায় পাওয়া যায় আবার অনেক জায়গায় যায় না। ধর্ষকদের বিরুদ্ধে পুলিশের সহযোগিতা প্রয়োজন। ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়ায় ধর্ষকেরা ভয় পাবে।

খুলনা অফিস : ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরুদ্ধে খুলনা মহানগর ও জেলায় ব্যতিক্রমী সমাবেশ করছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় স্থান ভেদে দুপুর ১টা পর্যন্ত এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিয়ন্ত্রণাধীন ৫২টি এবং জেলা পুলিশের ৬৯টি বিটে নারী ও শিশু ধর্ষণ, নির্যাতন-নিপীড়ন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। শারীরিক সুরক্ষা দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশের ৬ হাজার ৯১২টি বিট পুলিশিং এলাকায় এ সমাবেশের আয়োজক বাংলাদেশ পুলিশ।
নগরীতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। কেএমপি কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান ভূঞার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি রয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা। সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট এলাকার নারীদের পাশাপাশি জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষও উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে আমাদের বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বিট পুলিশিং কার্যালয় ১ নং জলমা ইউনিয়ন সভা কক্ষে ধর্ষণ রোধের আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) এ এন এম ওয়াসিম ফিরোজ। এতে বটিয়াঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রবিউল কবির, জলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আশিকুল, ইসলাম বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন নিঞ্জন রায়, জলমা চকরাখালি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তপন কুমার, বটিয়াঘাটা উপজেলা নারী নেত্রি প্রতিমা বিশ্বাসসহ বিট পুলিশের অফিসার ফোর্স, ইউপি মেম্বর, চৌকিদার এলাকার জন সাধারণ উপস্থিত ছিলেন। উক্ত অনুষ্ঠানে সবাইর একটাই স্লোগান ছিল নারী ধর্ষণ কোনভাবেই হতে দেওয়া হবে না। যদি কোন ব্যক্তি এই ধরনের কাজ করে তাহলে তাকে কঠিন শাস্তি ভোগ করতে হবে। এছাড়া লবণচরা ও হরিণটানা থানাসহ ২ নং বটিয়াঘাটার ইউনিয়ন কার্যালয়ে অনুরূপ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
চাটখিল (নোয়াখালী) সংবাদদাতা: বাংলাদেশ পুলিশ এর পক্ষ থেকে সারাদেশে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশের অংশ হিসেবে গতকাল শনিবার সকালে চাটখিল থানা পুলিশ অডিটরিয়ামে এক সভার আয়োজন করে। চাটখিল থানার এস আই কৃষ্ণ কুমার দাস এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চাটখিল-সোনাইমুড়ি সার্কেল এর সহকারী পুলিশ সুপার সাইফুল আলম খান। সভায় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রতিনিধি, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও মসজিদের ইমামরা অংশগ্রহণ করেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন চাটখিল প্রেস ক্লাব সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক মো. হাবিবুর রহমান, চাটখিল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মিজানুর রহমান বাবর, চাটখিল মহিলা কলেজের শিক্ষক মো. ইসমাইল হোসেন, মসজিদের ইমাম মো. মাহাবুব, পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম সারোয়ার বাদশা ও আবুল খায়ের প্রমুখ।
তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : সাতক্ষীরার তালা থানা পুলিশের তালা সদর ইউনিয়নের ২ নং বিটের উদ্যোগে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং র‌্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় তালা সদর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ সমাবেশ আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসাদুরজ্জামান।
তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেলের সভাপতিত্বে ও ওসি তদন্ত আবুল কালামের সঞ্চালণায় বক্তব্য রাখেন তালা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সরদার জাকির হোসেন, তালা মহিলা ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান,ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাইফুল ইসলাম,তালা প্রেস ক্লাবের সভাপতি প্রভাষক প্রণাব ঘোষ বাবলু, তালা থানার ২ নং বিট ইনচার্জ প্রীতিশ রায়, তালা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দীন বিশ্বাস প্রমুখ।
সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট এলাকার নারীদের পাশাপাশি জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সাংবাদিকসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষও উপস্থিত ছিলেন।
অনুরূপভাবে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে উপজেলার ১২টি বিটে নারী ও শিশু ধর্ষণ, নির্যাতন-নিপীড়ন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা : ময়মনসিংহের ত্রিশালে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ত্রিশাল পৌরসভার বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।
শনিবার নজরুল একাডেমি স্কুলমাঠে ধর্ষণ বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহমুদুল ইসলাম,প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবী নেওয়াজ সরকার, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এএনএম শোভা মিয়া আকন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, ভাইস চেয়ারম্যান্যান হুমায়ুন কবীর আকন্দ, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা ফজলে রাব্বি, আবুল কালাম, মোকছেদুল আমীন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা খানম রুমা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান্যান, লুৎফুননেছা বিউটি, উপজেলা পুলিশিং কমিটির সভাপতি আব্দুল মোতালেব, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সুয়েল মাহমুদ সমন, সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুমন, ছাত্র লীগের সভাপতি হাসান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন, ত্রিশাল প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা সরকার, সাধারন সম্পাদক সেলিম মিয়া, ত্রিশাল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি খোরশেদুল আলম মুজিব,  সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট এলাকার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
ধামইরহাট (নওগাঁ) সংবাদদাতা: নিরাপদ নারী-নিরাপদ দেশ, সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ, এই প্রতিপাদ্যে নওগাঁর ধামইরহাটে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী র‌্যালি-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ধামইরহাট থানার বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার নারী-পুরুষ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, মৌলভীদের নিয়ে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী র‌্যালিটি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে পৌর বিট কার্যালয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. দেলদার হোসেন। সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. শহীদুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, সাবিনা এক্কা, বীর মুক্তিযোদ্ধা অফির উদ্দিন, ছাত্রলীগ সভাপতি আবু সুফিয়ান হোসাইন, উলামা পরিষদ  নেতা মাওলানা মুশেদুল আলম মর্তুজা, পৌর বিট পুলিশ অফিসার এস.আই মহসীন আলী প্রমুখ।
চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে এনায়েতপুর প্রেস ক্লাব চত্বরে থানার ওসি আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে থানা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক (ভারঃ) আজগর আলী বিএসসি, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ বজলুর রশিদ, ওসি তদন্ত একেএম রাকিবুল হুদা, ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম সিরাজ ও প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রফিক মোল্লা বক্তব্য রাখেন। এর আগে থানা চত্বর থেকে এলাকার শিক্ষক, শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ নিয়ে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা: মুন্সীগঞ্জ  জেলা পুুুলিশের উদ্যোগে নারী  নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে গতকাল শনিবার সকালে মুন্সীগঞ্জ জেলার ৬ টি থানায় পোস্টার, লিফলেট, প্ল্যাকার্ড প্রদর্শনের মাধ্যমে একই সময়ে ৭৪ টি বিট পুলিশিং এলাকায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাজের সকল স্তরের নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমাম ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। পুলিশ সুপার, মুন্সীগঞ্জ জনাব আব্দুল মোমেন পিপিএম জনসাধারণকে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মত ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে সচেতন ও সোচ্চার থাকার জন্য অনুরোধ করেন।
টঙ্গী সংবাদদাতা : টঙ্গীর পাগাড় এলাকায় গতকাল শনিবার সকালে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, পিপিএম-সেবা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর আসাদুর রহমান কিরন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আজাদ মিয়া প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক সৈয়দ আতিক, গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী শিরিন শহিদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমা বেগম, টঙ্গী পশ্চিম থানা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আয়েশা আক্তার আশা, মুফতি তাজুল ইসলাম ফারুকী, বিউটি খানম, মনিরুজ্জামান প্রমুখ।
পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) সংবাদদাতা : জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে ‘নিরাপদ নারীর নিরাপদ দেশ-সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শনিবার বেলা  সাড়ে ১০ টায় থানা পুলিশের আয়োজনে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পৌর এলাকার ২ নং রেলগেট রাধাবাড়ী বিট পুলিশিং কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুনছুর রহমান। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পাঁচবিবি সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ইসতিয়াক আলম, প্যানেল মেয়র নুর হোসেন, পৌর আ.লীগের সভাপতি এস কে আব্দুল হক, ৬ নং ওয়ার্ড কমিশনার আনিছুর রহমান বাচ্চু, ৪ নং ওয়ার্ড কমিশনার বাহাদুর ফকির, এস,আই গোলাম মোস্তফা ও হাফিজ প্রমুখ। সভা শেষে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ