ঢাকা, মঙ্গলবার 27 October 2020, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

রাহুল গান্ধি গ্রেপ্তার

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ১৪৪ ধারা লঙ্ঘন করার অভিযোগে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতীয় পুলিশ। গণধর্ষণ ও নির্মম অত্যাচারে হাথরসে এক দলিত নারীর মৃত্যুর ঘটনায় ফুঁসে উঠেছে পুরো ভারত। বুধবার মুম্বাইতে মোমবাতি মিছিল করেছেন কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা। সেই আন্দোলন আরও জোরদার করতেই হাথরস যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন রাহুল গান্ধী ও তার বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।এ সময় পুলিশের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তির সময় রাহুলকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেওয়া হয়।পরে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এনডিটিভি অনলাইন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাহুল ও প্রিয়াঙ্কাসহ কংগ্রেস নেতা-নেত্রীদের প্রতিনিধি দলের একটি কনভয় হাথরসের পথে রওনা হয়। কংগ্রেসের এই কর্মসূচি ঠেকাতে ১৪৪ ধারা জারি করেছিল যোগী সরকার। রাহুল-প্রিয়াঙ্কাদের কনভয় হাইওয়ের গ্রেটার নয়ডায় আসতেই আটকে দেওয়া হয়। কিন্তু এরপরও রাহুল-প্রিয়াঙ্কা স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে হেঁটে রওনা দেন হাথরসের দিকে। 

এসময় রাহুল টুইটারে লিখেছেন, ‘এইমাত্র পুলিশ আমাকে ধাক্কা দিয়েছে, লাঠিচার্জ করেছে এবং মাটিতে ফেলে দিয়েছে। আমি জানতে চাই এদেশে কি কেবল মোদিই হাঁটতে পারবেন? সাধারণ মানুষ কি হাঁটতে পারবেন না? আমাদের গাড়ি থামানো হয়েছে, তাই আমরা হাঁটছি।’

হাথরস থেকে প্রায় ১৪০ কিলোমিটার দূর থাকতেই রাহুল-প্রিয়াঙ্কাদের দলটিকে আটকে দেয় পুলিশ। এসময় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা রাহুলকে বলেস, ‘আপনি ১৪৪ ধারা ভাঙছেন।’

জবাবে রাহুল বলেন, ‘১৪৪ ধারার অপব্যবহার করছেন আপনারা।’

কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এখান থেকে রাহুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নদীয়ার এডিসিপি রনবিজয় সিং বলেছেন, ‘আমরা তাদের এখানে থামিয়েছি। মহামারি আইনের লঙ্ঘন হয়েছে। আমরা তাদের সামনে যেতে দেব না।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ