সোমবার ০১ মার্চ ২০২১
Online Edition

আজ থেকে পুনরায় স্কিল ক্যাম্প শুরু ক্রিকেটারদের 

স্পোর্টস রিপোর্টার : টাইগারদের শ্রীলংকা সফর স্থগিত হওয়ার পর নতুন মিশন শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি। খেলোয়াড়দের বসিয়ে না রেখে নতুন পরিকল্পনা সাজাচ্ছে টাইগার প্রশাসন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ থেকে জাতীয় দলের স্কিল ক্যাম্প শুরু করার আগে ক্রিকেটার থেকে শুরু করে অনূর্ধ্ব-১৯ দল এবং টিমের সাপোর্ট স্টাফসহ শতাধিক জনের করোনা টেস্ট করানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। গতকাল থেকে করোনা টেস্টের মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু করেছে বিসিবি। এদিকে চার দিনের ছুটি শেষে আজ আবার টিম হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকতে যাচ্ছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। তার আগে গতকাল সম্পন্ন হয়েছে তাদের চতুর্থ দফার করোনা পরীক্ষা। জাতীয় দল ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ ও সাপোর্ট স্টাফসহ প্রায় ১শ জনের করোনা পরীক্ষা করিয়েছে টাইগার প্রশাসন। বিসিবির প্রধান চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ চৌধুরী এমন তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানালেন, 'হ্যাঁ, জাতীয় দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ ও সাপোর্ট স্টাফ আগামিকাল টিম হোটেলে উঠছে। আজ (গতকাল) ছিল তাদের কোভিড টেস্ট। শুধু তাদেরই নয়, অনূর্ধ-১৯ দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ ও সাপোর্ট স্টাফদেরও কোভিড টেস্ট সম্পন্ন হয়েছে। সবমিলে প্রায় ১শ জনের টেস্ট আমরা করিয়েছি।’ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ জাতীয় দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ ও সাপোর্ট স্টাফেরা আজ থকে ১৫ দিন  হোটেলে থেকে অনুশীলন ও তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নিবেন। আর অনূ-১৯ দল, কোচিং স্টাফ ও সাপোর্ট স্টাফ চলে যাবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বিকেএসপিতে চার সপ্তাহের আবাসিক ক্যাম্পের লক্ষ্যে। শ্রীলংকা সিরিজ সামনে রেখে গত ২০ সেপ্টেম্বর করোনা পরীক্ষার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট  বোর্ড-বিসিবি কর্তৃক তৈরিকৃত জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকেছিলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। করোনা অতিমারির সময়ে ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এই বলয় তৈরি করা হয়েছিল টিম হোটেল ও অনুশীলন ভেন্যু মিরপুর শের-ই-বাংলায়। এক সপ্তাহের অনুশীলন  শেষে লঙ্কা সিরিজ নিয়ে কোনো অগ্রগতি না থাকায় ক্রিকেটারদের তিন দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছিল। বিসিবি জানিয়েছিল শ্রীলংকা সিরিজ না হলেও এই অনুশীলন চলবে। সেই পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই আজ আবার জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকতে যাচ্ছেন টাইগাররা। এবার জাতীয় দলের ২৭ ক্রিকেটার আরও বেশি সংস্পর্শে আসবেন পরস্পরের। কারণ ৩টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন নিজেরা। করোনা টেস্টে উত্তীর্ণ হলে হোটেলে আইসোলেশনে থেকে আজ থেকে পুনরায় স্কিল ক্যাম্প শুরু করবে ক্রিকেটাররা। এ অনুশীলন চলবে আগামী ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। এছাড়াও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের প্রাথমিক স্কোয়াডের ২৮ জনকেও ডেকেছে বিসিবি। ক্রিকেটারদের পাশাপাশি বিসিবি কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফদেরও করোনা টেস্ট করানো হবে। এরপর যুবারা ৪ সপ্তাহের স্কিল ট্রেনিং করবেন। এ সময় নিজেদের মধ্যে ৫টি ওয়ানডে খেলবেন। ম্যাচগুলো ১৭, ১৮, ২২, ২৪ ও ২৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। যেখান থেকে নির্বাচন করা হবে চূড়ান্ত দল। এদিকে হোটেলে ক্রিকেটারদের সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে সেখানকার কর্মকতা, কর্মচারী এবং টিম বাসের চালকদেরও করোনা টেস্ট বিসিবি নিজেদের উদ্যোগেই করবে। এখানে আছেন প্রায় ৩২ জনের মতো। ফলে সবমিলিয়ে প্রায় শতাধিক করোনা টেস্ট করাবে বিসিবি। এ বিষয়ে ডা. দেবাশীষ বলেন, ‘জাতীয় দল, অনূর্ধ্ব-১৯ দল রয়েছেন। এছাড়া দু’দলের কোচিং ও সাপোর্টিং স্টাফ রয়েছে। টিম হোটেলেরই কর্মকর্তা রয়েছেন ৩২ জন। সবমিলিয়ে প্রায় শতাধিক করোনা টেস্ট করাবো আমরা।’ এদিকে ৩ অক্টোবর আরেক দফা করোনা টেস্ট রয়েছে সবার, তবে সেটি নিয়ে পরবর্তী সময়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ