মঙ্গলবার ২৪ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

করোনার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে সক্ষম জনসনের টিকা

স্টাফ রিপোর্টার : জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনা ভাইরাস টিকা আশা জাগিয়েছে। টিকাটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে দেখা যায়, প্রায় ৮০০ স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে একটি করে ডোজই শক্তিশালী প্রতিরোধী ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে।
দুই বছর বয়স গ্রুপের ওপর প্রাথমিক ও মধ্যবর্তী ধাপের এই পরীক্ষা চালানো হয়। ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী এবং ৬৫ বছর বয়সের বেশিদের ওপর এই টিকা নিরাপদ ও কার্যকর কিনা তা এই ট্রায়ালে দেখা হয়েছে।
প্রাথমিকভাবে দেখা গেছে যে, এই টিকা রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা তৈরি করছে এবং বড় মাত্রায় পরীক্ষা চালানোর মতো নিরাপদও এটি। এই গবেষণার ফলাফল মেডআরজিভে পোস্ট করা হয়েছে। তবে এটা পিয়ার রিভিউ বা কোনও মেডিকেল জার্নালে এখনও প্রকাশ করা হয়নি।
জনসন অ্যান্ড জনসন জানিয়েছে, তাদের অ্যাড২৬ কোভ২ এস টিকার মধ্যবর্তী বিশ্লেষণে দেখা গেছে- ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী স্বেচ্ছাসেবীদের ৯৯ ভাগের শরীরেই ২৯ দিনের মধ্যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। এছাড়া টিকাজনিত কারণে সৃষ্টি হওয়া পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যেমন জ্বর, মাথাব্যথা, ক্লান্তি, শরীর ব্যথা, টিকার জায়গায় ব্যথা হালকা ছিল এবং তা দুইদিনের মধ্যেই সেরে গেছে।
এদিকে বুধবার থেকে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের টিকার তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা শুরু করেছে জনসন অ্যান্ড জনসন। তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় এক ডোজ করে টিকা যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ৬০ হাজার মানুষকে দেবে সংস্থাটি।
উল্লেখ্য, বিশ্বে প্রায় দুই শতাধিক করোনা টিকার পরীক্ষা চলছে। এর মধ্যে তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা চলছে বেশ কয়েকটি টিকার। তবে জনসন অ্যান্ড জনসনসহ যুক্তরাষ্ট্রের চারটি প্রতিষ্ঠানের টিকা তৃতীয় ধাপে রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ