ঢাকা, মঙ্গলবার 20 October 2020, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

টাইমের প্রভাবশালী তালিকায় ‘সিএএবিরোধী আন্দোলনের মুখ’ বিলকিস

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: বিলকিস বেগম। ৮২ বছরের এ নারী স্থান পেয়েছেন চলতি বছরের টাইমের ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায়। 

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টাইম ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন ভারতের দিল্লিতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে টানা আন্দোলনের মুখ হিসেবে পরিচিত ৮২ বছর বয়সী বিলকিস বেগম।

চলতি বছরের শত প্রভাবশালীর এ তালিকায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বলিউড তারকা আয়ুষ্মান খুরানার নামও আছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতি বছরই যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক এ ম্যাগাজিন রাজনীতিক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাবশালীদের মধ্যে ১০০ জনকে বেছে নিয়ে এ তালিকা করে।

চলতি বছরের তালিকায় ৮২ বছর বয়সী বিলকিসের নাম আসায় ভারতজুড়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনবিরোধীরা ব্যাপক উচ্ছ্বসিত। দিল্লির শাহিনভাগে মুসলিম নারীদের যে দলটি শান্তিপূর্ণভাবে সিএএবিরোধী কর্মসূচি পালন করেছিল, বিলকিস ছিলেন তাদের একজন। ভারতজুড়ে পরে তিনি ‘দাদি’ নামে পরিচিতি পান। 

টাইম ম্যাগাজিনে বিলকিসের প্রোফাইল লিখেছেন ভারতীয় সাংবাদিক ও লেখক রানা আইয়ুব। বিলকিসকে তিনি বর্ণনা করেছেন ‘প্রান্তিক মানুষের কণ্ঠস্বর হিসেবে’।

“গণতন্ত্র থেকে পিছলে কর্তৃত্ববাদের দিকে যাত্রা করা একটি দেশে অজনপ্রিয় সত্যের পক্ষে দাঁড়ানোর কারণে কারাগারে নিক্ষিপ্ত হওয়া ছাত্রনেতা ও আন্দোলনকারীদের শক্তি আর আশা দিয়েছেন বিলকিস। দেশজুড়ে এ ধরনের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে অনুপ্রাণিত করেছেন,” লিখেছেন আইয়ুব।

বিলকিস টাইমের প্রভাবশালী তালিকায় স্থান পাওয়ার পরপরই ভারতজুড়ে টুইটারে ‘শাহিনবাগ’ ও ‘বিলকিস’ ট্রেন্ড হয়ে ওঠে। তারকাজগতের অনেকে ‘দাদি’র এ অর্জনে উচ্ছ্বাসও ব্যক্ত করেছেন।

টুইটারে ৮২ বছর বয়সী এ বৃদ্ধাকে ‘সাহসী, শাহিনবাগের অনুপ্রেরণাদায়ী কণ্ঠস্বর’ অভিহিত করেছেন বলিউড পরিচালক ওনির।

আইনজীবী করুণা নুন্দি তার টুইটে বলেছেন, “সংবিধান পুনরুদ্ধারে শাহিনবাগে বিলকিসের আন্দোলন চলতি বছরের সবচেয়ে অনুপ্রেরণাদায়ক কর্মকাণ্ড।”

সিএএবিরোধী ওই টানা আন্দোলনে অসংখ্য মুসলিম নারী শাহিনবাগে শান্তিপূর্ণভাব বসে ভারতীয় সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠ করেছেন, নিজেদের নাগরিকত্বের সপক্ষে জ্বালাময়ী বক্তব্য রেখেছেন, গেয়েছেন দেশাত্মবোধক গান। মুসলমান নারীদের পাশাপাশি অন্য ধর্মের অসংখ্য মানুষও তাদের পাশে বসে ওই আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছিলেন।  

ভারতে পাস হওয়া এ বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে ২০১৫ সালের আগে ভারতে আশ্রয় নেওয়া অ-মুসলিম শরণার্থীদেরই নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

আইনটির বিরুদ্ধে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, মুসলিম ও নাগরিক অধিকার সংগঠন সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও হয়েছে। ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার বিধান ভারতের সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষ মূল্যবোধের বিপরীত জানিয়ে আইনটিকে অবৈধ হিসেবেও অ্যাখ্যা দিয়েছে তারা।

অন্যদিকে আইনটির পক্ষে থাকা ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি সিএএবিরোধীদের ‘দেশদ্রোহী ও বিশ্বাসঘাতক’ অ্যাখ্যা দিয়েছে।

টাইমের চলতি বছরের শত প্রভাবশালীর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কমলা হ্যারিসও স্থান পেয়েছেন।  

- বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ