শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

চট্টগ্রামে আরো ১১৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরো ১১৭জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ মিলেছে। এরমধ্যে নগরের ৯০ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ২৭ জন। এ নিয়ে চট্টগ্রামে করোনা রোগীর সংখ্যা এখন ১৪ হাজার ৯৯১জন। শনিবার চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানিয়েছেন।
 গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের প্রধান করোনা পরীক্ষাগার ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি)-তে বিদেশগামীদের বাধ্যতামূলক করানো করোনা টেস্টসহ ১৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা করোনা করা হয়। তাতে করোনা শনাক্ত হয় মাত্র ৩ জন। এর মধ্যে ২ জন নগরের বাসিন্দা ও ১ জন উপজেলার।
  চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি (সিভাসু) ল্যাবে ১৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজিটিভ হন ৯ জন। এর মধ্যে ১৩৮ জন নগরের ও ১ জন বিভিন্ন উপজেলার।
 চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় দিনের সর্বাধিক ১৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে সর্বোচ্চ ২৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু পাওয়া যায়। যাদের মধ্যে নগরের ২২ জন ও বাকি ৫ জন উপজেলার বাসিন্দা।
 চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৫২ জনের করোনার পরীক্ষা হয়। তাতে ২৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। যাদের ১২ জন নগরের এবং ১৪ জন বিভিন্ন উপজেলার।
 বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। যাদের সবাই নগরের।
 চট্টগ্রামের আরেকটি বেসরকারি পরীক্ষাগার শেভরণ ল্যাবে ১৭৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়। এদের মধ্যে ২১ জনই নগরের এবং বাকি ৪ জন উপজেলার বাসিন্দা।
কক্সবাজার মেডিকেল: কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে উপজেলার ২ জন রোগী পাওয়া যায়।
জেলা সিভিল সার্জন অফিস জানেিয়ছে, উপজেলা পর্যায়ে নতুনভাবে করোনা শনাক্ত ২৭ জনের মধ্যে আবারও শীর্ষস্থানে চলে আসে রাউজান উপজেলা। সেখানে ৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এছাড়া হাটহাজারীতে ৭ জন, পটিয়া ও সীতাকুণ্ডে ৩ জন করে, বাঁশখালী ও বোয়ালখালীতে ২ জন করে এবং ফটিকছড়িতে ১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, ১১৭জন বেড়ে চট্টগ্রামে করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৯৯১জনে। যাদের মধ্যে ১০ হাজার ৫৩৮ জন নগরের এবং ৪ হাজার ৪৫৩ জন উপজেলার বাসিন্দা। একইসাথে ১০৫ জন করোনা সুস্থ হওয়ার মধ্য দিয়ে ৩ হাজার অতিক্রম করলো সুস্থতার সংখ্যা। করোনার কাছে হেরে গেছেন ২৪০ জন। যাদের ১৬৭ জন নগরের ও ৭৩ জন বিভিন্ন উপজেলার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ