বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

হকি ফেডারেশনকে সাঈদের আইনি নোটিশ

স্পোর্টস রিপোর্টার : বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক  মমিনুল হক সাঈদ কোথায় আছেন তা জানতে চেয়ে কিছুদিন আগে চিঠি পাঠিয়েছিল হকি ফেডারেশন। দীর্ঘ ৬ মাসের অধিক সময় এবং পরপর চারটি কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় অনুপস্থিতির থাকার কারণ জানতে চাওয়া হয়েছিল চিঠিতে। ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছিল সাইদকে। কিন্তু সাঈদ সেই চিঠির জবাব না দিয়ে উল্টো ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফের বরাবর আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন!

৬ মাসের বেশি সময় ধরে ফেডারেশনে আসছেন না সাঈদ। ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির টানা চারটি সভাতেও তিনি অনুপস্থিত। মূলত গত বছরের সেপ্টেম্বরে ঢাকার ক্রীড়া ক্লাবগুলোতে সরকারের ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর থেকেই সাঈদের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। যে কারণে কিছুদিন আগে তার ঠিকানায় চিঠি পাঠিয়েছিল হকি ফেডারেশন। ২৭শে জুলাই ছিল উত্তর দেয়ার শেষ দিন। কিন্তু সাঈদ জবাব না দিয়ে উল্টো আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন। নোটিশ প্রাপ্তির বিষয়টি স্বীকার করে ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, ‘চিঠির জবাবের বদলে তিনি একটি আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন। সেখানে তিনি জানতে চেয়েছেন, আমি কেন তাকে চিঠি দিলাম।’ চিঠি দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ফেডারেশনের গঠনতন্ত্রে লেখা আছে সাধারণ সম্পাদকের অনুপস্থিতিতে নির্বাহী দায়িত্ব পালন করবেন প্রথম যুগ্ম সম্পাদক। তাছাড়া নির্বাহী সভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। আর ফেডারেশনের সভাপতির (বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত) নির্দেশে তার অবস্থান জানতে চেয়ে চিঠি দেয়া হয়েছিল। এখানে ব্যক্তিগতভাবে আমার চিঠি পাঠানোর কোনো সুযোগ নাই। কিন্তু তিনি আমাকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন।’ তাহলে এখন ফেডারেশন কী করবে? ইউসুফ বলেন, ‘আগামীকাল আমরা আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে এ ব্যাপারে আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নেবো। ফেডারেশনের সভাপতিও বিষয়টি সম্পর্কে অবগত আছেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ