শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

সংবাদকর্মীদের ছাঁটাই বন্ধ করে বকেয়া পাওনাদি পরিশোধের দাবি ডিইউজের

 

বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদকর্মীদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ না করে ছাঁটাইয়ের ঘটনায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ জানিয়ে অবিলম্বে ছাঁটাইকৃত সংবাদকর্মীদের চাকরি পুনর্বহাল করে তাদের সকল পাওনাদি পরিশোধ করার জোর দাবি জানিয়েছেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজের নেতৃবৃন্দ। 

গতকাল আজ বৃহস্পতিবার ডিইউজে কার্যালয়ে ইসি মিটিং-এ নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান। ডিইউজের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি শাহীন হাসনাত ও রাশেদুল হক, কোষাধ্যক্ষ গাজী আনোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম, প্রচার সম্পাদক খন্দকার আলমগীর, জনকল্যান সম্পাদক দেওয়ান মাসুদা সুলতানা, ক্রিড়াও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবুল কালাম, দফতর সম্পাদক ডি এম আমিরুল ইসলাম অমর, নির্বাহী সদস্য রফিক মোহাম্মদ, শহীদুল ইসলাম, আবুল হোসেন খান মোহন, জেসমিন জুঁই, কাজী তাজিম উদ্দিন, রফিক লিটন, আব্দুল হালিম। এছাড়া বিভিন্ন ইউনিটের ইউনিট চীফ ও ডেপুটি ইউনিট চীফরা উপস্থিত ছিলেন। 

নেতৃবৃন্দ বলেন, কোনো ধরনের আলোচনা ছাড়া সংবাদকর্মীদের ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণযোগ্য নয়।  অনেক গণমাধ্যম ৮ম ওয়েজবোর্ডের রেটকার্ড নিলেও কর্মরত সবাই তা পান না বলে অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি করোনাকালে কোনো নিয়মকানুন ও বিদ্যমান আইনের তোয়াক্কা না করে হঠাৎ করেই বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীদের ছাঁটাই করা হচ্ছে। কাউকে কাউকে চুক্তিভিত্তিক কাজ করানো হচ্ছে, যা জঘন্যতম অপরাধ। এছাড়া ছাঁটাইয়ের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি সকল চাকরিচ্যুতদের অবিলম্বে ওয়েজবোর্ড ও শ্রম আইন অনুযায়ী পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানানো হয়।

নেতৃবৃন্দ সকল মিডিয়ার মালিকদের হুশিয়ার করে দিয়ে নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে প্রতিষ্ঠান পরিচালনার অনুরোধ জানান। নতুবা উদ্ভূত পরিস্থিতির দায়-দায়িত্ব তাদেরকে বহন করতে হবে বলে উল্লেখ করেন। প্রেসবিজ্ঞপ্তি। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ