বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

বনানী কবরস্থানে শাহজাহান সিরাজের দাফন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার: কয়েকদফা নামাজে জানাযা শেষে গতকাল বুধবার বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয় সাবেক বন ও পরিবেশমন্ত্রী, বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী শাহজাহান সিরাজকে। মরহুমের প্রথম জানাযা বুধবার সকাল ১২টায় টাঙ্গাইল এলেঙ্গায় অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় জানাযা বাদ জোহর কালিহাতী উপজেলায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। শেষ জানাযা বাদ এশা গুলশান সোসাইটি মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়। এতে গণস্বাস্থের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপি নেতা শামসুর রাহমান শিমুল বিশ্বাস, ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, তাবিথ আউয়াল, শায়রুল কবির খানসহ নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
এদিকে সাবেক বন ও পরিবেশমন্ত্রী, বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী শাহজাহান সিরাজের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছে টাঙ্গাইলবাসী। শ্রদ্ধা, ভালোবাসা আর চোখের জলে স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী এই মুক্তিযোদ্ধাকে শেষ বিদায় জানান টাঙ্গাইলের সর্বস্তরের মানুষ।
বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় অ্যাম্বুলেন্সযোগে শাহজাহান সিরাজের লাশ ঢাকা থেকে এলেঙ্গায় পৌঁছলে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। প্রিয় নেতাকে দেখার জন্য দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে।
দুপুর ১২টার দিকে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা সরকারি শামসুল হক কলেজ মাঠে তার প্রথম জানাযা ও দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে কালিহাতী সদরের শাহজাহান সিরাজ কলেজ মাঠে দ্বিতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় শোকার্ত মানুষের ঢল নামে।
কালিহাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম আরা নিপার উপস্থিতিতে এই বীর সন্তানকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী এবং সাধারণ মানুষ তার জানাযায় অংশ নেন।
করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে সামাজিক দূরত্ব মেনে জানাযা অনুষ্ঠিত হওয়ায় মাঠে জায়গা হয়নি সবার। পরে রাস্তায় দাঁড়িয়ে অনেক মানুষ জানাযা পড়েন। দুই জানাযায় প্রশাসন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, পেশাজীবী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষে ফুল দিয়ে এই মুক্তিযোদ্ধাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়।
এর আগে মহান মুক্তিযুদ্ধে শাহজাহান সিরাজের অবদানের কথা স্মরণ করে বক্তব্য দেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা। পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন শাহজাহান সিরাজের মেয়ে ব্যারিস্টার সারোয়ার সিরাজ শুক্লা। জানাযা শেষে তার মরদেহ ঢাকার বনানী কবরস্থানে দাফনের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।
জানাযায় অংশগ্রহণ করেন টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনের সংসদ সদস্য হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনছার আলী বিকম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য লুৎফর রহমান মতিন, টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরহাদ ইকবাল, টাঙ্গাইল জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম রফিক, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক শুকুর মাহমুদ ও কালিহাতী পৌরসভার মেয়র আলী আকবর জব্বার।
প্রসঙ্গত, শাহজাহান সিরাজ মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। শাহজাহান সিরাজ ছিলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক। মুক্তিযুদ্ধের সময় যাদের ‘চার খলিফা’ বলা হতো শাহজাহান সিরাজ ছিলেন তাদেরই একজন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ