বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

দেশে করোনায় আরও ৩৩ মৃত্যু নতুন আক্রান্ত ৩ হাজার ৫৩৩

স্টাফ রিপোর্টার : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হিসেবে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ হাজার ৫৩৩ জন শনাক্ত হয়েছেন। ফলে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫৯০ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৩৩ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ হাজার ৪৫৭ জনে।
গতকাল বুধবার দুপুরে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় (গত মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) দেশের ৭৯টি পরীক্ষাকেন্দ্রে ১৪ হাজার ২টি নমুনা পরীক্ষার ফল পাওয়া গেছে। এসব পরীক্ষায় নতুন করে ৩ হাজার ৫৩৩ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এই নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫৯০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৫.২৩ শতাংশ।
ডা. নাসিমা আরও জানান, গতকাল বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৩ জনের। এই নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ হাজার ৪৫৭ জনের মৃত্যু হলো। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৪ শতাংশ। সর্বশেষ মারা যাওয়া ৩৩ জনের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ এবং ৬ জন নারী। এ দিকে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ১ হাজার ৭৯৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন জানিয়ে ডা. নাসিমা বলেন, এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ও বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়া ১ লাখ ৫ হাজার ২৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৪.২৫ শতাংশ।
গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় এবং ১৮ মার্চ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এরপর প্রথম দিকে করোনার প্রাদুর্ভাব দেশে কিছুটা কম থাকলেও এখন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্সেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, গতকাল বুধবার দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৩৩ লাখ ২৩ হাজার ৫৩০ জন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৬২৮ জন। আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩১০ জন। বুলেটিনে আরও জানানো হয়, এ পর্যন্ত এক হাজার ৯৪০ জন পুরুষ এবং ৫১৭ জন নারী মৃত্যুবরণ করেছেন। শতকরা হিসেবে পুরুষ ৭৮ দশমিক ৯৬ এবং নারী ২১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৩ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে ১০ বছরের নিচে একজন, ত্রিশোর্ধ্ব তিনজন, চল্লিশোর্ধ্ব পাঁচজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১০ জন, ষাটোর্ধ্ব সাতজন, সত্তরোর্ধ্ব পাঁচজন ও ৮০ বছরের বেশি বয়সী দুজন।
বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারী ৩৩ জনের মধ্যে ১৬ জন ঢাকা বিভাগের, সাতজন চট্টগ্রাম বিভাগের, দুজন রাজশাহী বিভাগের, পাঁচজন খুলনা বিভাগের এবং তিনজন রংপুর বিভাগের। হাসপাতালে মারা গেছেন ২৭ জন এবং বাসায় আটজন।
বৈশ্বিক পরিস্থিতি: গোটা বিশ্বকে মৃত্যুপুরীতে পরিণত করেছে করোনাভাইরাস। গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়ানোর পর বিশ্বজুড়ে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এখন এক কোটি ৩৪ লাখ ৭২ হাজারের বেশি। মৃতের সংখ্যা প্রায় পাঁচ লাখ ৮১ হাজার। তবে প্রায় ৭৮ লাখ ৭৬ হাজার রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ