ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 August 2020, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

করোনায় ব্রাজিলে মৃতের সংখ্যা ৭২ হাজার ছাড়াল

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ব্রাজিল রবিবার জানিয়েছে যে দেশব্যাপী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৭২ হাজার ১০০ জনে দাঁড়িয়েছে। তাদের মধ্যে আগের ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৬৩১ রোগী।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, একই সময়ে নতুন করে ২৪ হাজার ৮৩১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ১৮ লাখ ৬৪ হাজার ৬৮১ জন।

ব্রাজিলে মোট শনাক্তের ক্ষেত্রে মৃত্যুর হার ৩.৯ শতাংশ। সেখানে গত ৪ মাসে ১১ লাখ ২৩ হাজার ২০৪ জন কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়েছেন বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ তথ্যে দেখা গেছে।

ব্রাজিলে করোনা মহামারির মূলকেন্দ্র সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য সাওপাওলো। এখানে ৩ লাখ ৭১ হাজার ৯৯৭ জন আক্রান্ত এবং ১৭ হাজার ৮৪৮ জন মারা গেছেন।

শুধু ব্রাজিলই নয়, গোটা লাতিন আমেরিকার অন্যান্য দেশগুলোও করোনার ভয়াবহতা দেখছে। ঘটছে প্রতিদিনই রেকর্ড সংক্রমণ। এতে করে করোনাকে বাগে আনতে দেশগুলোর সরকার মানুষকে ঘরে রাখতে চেষ্টা করছেন। কিন্তু অর্থনীতির চাকা সচল থাকা নিয়ে রয়েছে যত দুশ্চিন্তা। ফলে, এমন অবস্থার মধ্যদিয়ে ব্রাজিল, পেরু, চিলি, ইকুয়েডর ও মেক্সিকোর মতো দেশগুলোতে অনেক কিছুই চালু রয়েছে। 

এর মধ্যে ব্রাজিলে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা। যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটিতে আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে বেশ বিপাকে পড়তে হচ্ছে চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোকে। অপরদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দ্বিতীয় দফায় করোনা আরও ভয়াবহ রূপ নিতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। 

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, সোমবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ২৮ লাখ ৭২ হাজার ৪৩৪ জনে। এছাড়া প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৫ লাখ ৬৮ হাজার ২৯৬ জনে।

এ সময়ের মধ্যে কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭০ লাখেরও বেশি মানুষ।

জেএইচইউর তথ্য অনুসারে, করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৩৩ লাখের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ১৭৬ জনের। তাদের পর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল।

এদিকে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত দেশের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে উঠে আসা ভারতে এখন পর্যন্ত ৮ লাখ ৪৯ হাজার ৫৫৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ২২ হাজার ৬৭৪ জনের। 

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ