বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

করোনায় বিশ্বে প্রাণ গেলো ৫ লাখ ৫৮ হাজার মানুষের

স্টাফ রিপোর্টার : করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৫ লাখ ৫৮ হাজার জন। এছাড়া এ পর্যন্ত ১ কোটি ২৩ লাখ ৯৪ হাজার ৭০৯ জনের শরীরে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এরইমধ্যে ২১২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত এ সংখ্যা নিশ্চিত করেছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার।
আক্রান্তদের মধ্যে ৭২ লাখ ২৫ হাজার ১২৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৪৬ লাখ ১২ হাজার ৭০ জন। এদের মধ্যে ৪৫ লাখ ৫৩ হাজার ৪১৮ জনের শরীরে মৃদু সংক্রমণ থাকলেও ৫৮ হাজার ৬৫২ জনের অবস্থা গুরুতর।
ভাইরাসটির আক্রমণে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা প্রভাবশালী দেশ যুক্তরাষ্ট্রের। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮২২ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ লাখ ১৯ হাজার ৯৯৯ জন। আর মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরের অবস্থানে উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬৯ হাজার ২৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ লাখ ৫৯ হাজার ১০৩ জন।
ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য মৃত্যুর তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪৪ হাজার ৬০২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৮৭ হাজার ৬২১ জন। এর পরের অবস্থানেই রয়েছে ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৯২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে অবশ্য ইতালির অবস্থান ১২তম। এখানে ২ লাখ ৪২ হাজার ৩৬৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
মৃত্যুর তালিকায় এর পরের অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৩ হাজার ৫২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৮২ হাজার ২৮৩ জন। ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হয় চীনে। সেখানে এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজার ৫৮৫ জন এবং মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৪ জন।
বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪ জনের শরীরে। এদের মধ্যে মারা গেছেন ২ হাজার ২৩৮ জন এবং সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৮৪ হাজার ৫৪৪ জন।
ডিসেম্বরে চীনে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়া গেলেও বাংলাদেশে ভাইরাসটি শনাক্ত হয় ৮ মার্চ। ওইদিন তিন জন করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এরপর থেকে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত শনাক্তকৃত রোগীর সংখ্যা অনেকটাই সমান্তরাল ছিল। কিন্তু এরপর থেকে বাড়তে থাকে রোগীর সংখ্যা।
সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে যেসব দেশে: যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮২২ জন। ব্রাজিলে ৬৯ হাজার ২৫৪ জন। যুক্তরাজ্যে ৪৪ হাজার ৬০২ জন। ইতালিতে ৩৪ হাজার ৯২৬ জন। মেক্সিকোতে ৩৩ হাজার ৫২৬ জন। ফ্রান্সে ২৯ হাজার ৯৭৯ জন। স্পেনে ২৮ হাজার ৪০১ জন। ভারতে ২১ হাজার ৬৩২ জন। ইরানে ১২ হাজার ৩০৫ জন। পেরুতে ১১ হাজার ৩১৪ জন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ