বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

প্রতিষ্ঠার পর সর্বোচ্চ ৬১০০ কোটি টাকার বাজেট ডিএসসিসির

তোফাজ্জল হোসাইন কামাল: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) প্রতিষ্ঠার পর এবার সর্বোচ্চ বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছে। আগামী সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষিত হতে যাওয়া চলতি অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের আকার হচ্ছে ৬১০০ কোটি টাকা। যা গত অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের চেয়ে প্রায় ২৫০০ কোটি টাকা বেশি। ডিএসসিসির সংশ্লিষ্ট সুত্রে এ খবর জানা গেছে।

সুত্র মতে, নতুন অর্থবছরের ( ২০২০-২০২১) প্রস্তাবিত বাজেটের আকার প্রায় দ্বিগুন করা হলেও নগরবাসীর যন্ত্রনা ‘মশক’ নিধনে বাজেট কম রাখা হচ্ছে। অর্থাৎ চলতি অর্থ বছরে এ খাতে বরাদ্দ কম হবে। করোনাকালে রাজস্ব আদায়ের গতি শ্লথ হলেও নতুন অর্থবছরে ১৯টি খাতকে নতুন করের আওতায় আনার প্রস্তাবনা থাকছে ডিএসসিসির বাজেটে।

জানা গেছে, নতুন অর্থবছরের প্রস্তাাবিত বাজেটটি করপোরেশনের দ্বিতীয় বোর্ড সভায় কাউন্সিলররা সম্মতি দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার নগর ভবনে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এরপরই বাজেট ঘোষণার সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়। আগামী সপ্তাহের কোন একদিন বাজেট ঘোষণা হবে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেলেও দিনটি নির্ধারণ হয়নি। খসড়া বাজেটটির এখন চূড়ান্ত করার কাজ চলছে। এর মধ্যেই খসড়া বাজেটের কপি গণমাধ্যমের হাতে চলে যায়।

 ডিএসসিসির দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে , গেল ২০১৯-২০ অর্থবছরে সংস্থাটি ৩ হাজার ৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেছিল। পরে সংশোধিত বাজেট দাঁড়ায় প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা। এর আগের বছর ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকার। ওই বছর সংশোধিত বাজেট ছিল প্রায় ১ হাজার ৯০০ কোটি টাকা।

এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বাজেট ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ করা না হলেও সংস্থাটির প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মুনান হাওলাদার বাজেটের আকার বাড়তে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন। এর বেশি কিছু বলতে রাজি হননি তিনি।

করপোরেশন সূত্র বলছে, বোর্ড সভায় কাউন্সিলরদের সামনে উপস্থাপিত এই বাজেট কিছুটা কমবেশি হতে পারে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন করপোরেশনের শীর্ষ কর্মকর্তা। এরপর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাজ শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজেট উপস্থাপন করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ