সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

অর্থনীতিকে বাঁচাতে ব্রিটেনে ৩০ বিলিয়নের বিশেষ প্যাকেজ

৯ জুলাই,ইন্টারনেট :  অর্থনীতি চাঙ্গা করতে বিশেষ পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন ব্রিটেনের চ্যান্সেলর (অর্থমন্ত্রী) ঋষি সুনাক। বুধবার হাউস অব কমন্সে অর্থনীতি পুনরোদ্ধার ও হসপিটালিটি সেক্টরের প্রাণ ফিরিয়ে আনতে ৩০ বিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্ধের ঘোষণা দেন তিনি।

বুধবার পার্লামেন্টে নতুন এই পরিকল্পনা উপস্থাপন কালে ঋষি সুনাক জানান, অক্টোবরে ফারলো প্রকল্পটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর যে সমস্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তিন মাস তাদের কর্মীদের কাজে রাখবে, প্রত্যক কর্মীর জন্য সরকার ঐ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে এক হাজার পাউন্ড বোনাস প্রদান করবে। ১.৮ মিলিয়ন মানুষের চাকরি রক্ষায় সরকার এই উদ্যোগ গ্রহন করেছে বলে জানান তিনি। 

আগামী বুধবার থেকে ২০২১ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত বর্তমানের ২০% ভ্যাট ১৫% কমিয়ে ৫% এ নামিয়ে আনারও ঘোষণা দেন মি: সুনাক। ভ্যাট মওকুফের এই সুবিধা পাবে রেস্তোঁরা, ক্যাফে, পাব, হোটেল, বিএন্ডকিউ, কেরাবিয়ান সাইট, সিনেমা, থিমস পার্ক এবং চিডিয়াখানা।

ব্রিটিশ জনগনকে আগের মত রেষ্টুরেন্ট, ক্যাফে অভিমূখি করতে সরকারের ব্যতিক্রমী পরিকল্পনার কথাও পার্লামেন্টকে জানান চ্যান্সেলর সুনাক। তিনি বলেন, আগামী আগস্ট মাসের প্রতি সোমবার থেকে বুধবার ক্যাফে, রেস্তোঁরা, পাবে অর্ধেক মুল্যে খাবার পাবে কাস্টমাররা। এই খাবারে জনপ্রতি ১০ পাউন্ড পর্যন্ত দেবে সরকার। এই সুযোগ শিশুদের বেলায়ও প্রযোজ্য হবে এমনটি জানিয়ে ঋষি সুনাক বলেন, ‘তবে অ্যালকোহল বা মদ পানের বেলায় এই সুবিধা পাবেননা কাস্টমাররা। খাবারে দেয়া এই হ্রাসকৃত মূল্য থাকবে সীমাহীন। অর্থাৎ পুরো অগাষ্ট মাসব্যাপী জনগন যতবার খুশি, ততবার বাইরে খাবার বেলায় এই সুযোগ পাবে।

সরকারি পরিসংখ্যান মতে ব্রিটেনের প্রতিটি পরিবার গড়ে ২০ পাউন্ড সপ্তাহে বাইরের খাবার গ্রহন করে থাকেন। এই হিসেবে একটি পরিবারের ৪ সদস্যের যদি বাইরের খাবার বিল ৮০ পাউন্ড হয় তবে তারা তা পাবেন অর্ধেক হ্রাসকৃত মূল্য ৪০ পাউন্ডে। ব্যবসা মালিকরা খাবারের হ্রাসকৃত মূল্য দাবী করার ৫ কর্ম দিবসের মধ্যে তা তাদের একাউন্টে পেয়ে যাবেন।

আবাসন শিল্প রক্ষায়ও সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা পার্লামেন্টকে জানান চ্যান্সেলর ঋষি সুনাক। পরিকল্পনায় বাড়ী ঘর ক্রয় করতে ৫শ হাজার পাউন্ড পর্যন্ত এখন স্ট্যাম্প ডিউটি লাগবেনা, সাড়ে ৪হাজার পাউন্ড পর্যন্ত শুল্ক দিতে হবে না ক্রেতাদের। এই সুযোগ থাকবে আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

ওয়ার্ক এন্ড পেনশন সেক্টরে মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষকে সেবা দিতে নতুন কর্মসংস্থানের জন্য ১.২ বিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্ধেরও ঘোষণা দেয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে। কনস্ট্রাকশন ও স্যোশাল কেয়ার সার্ভিসে নতুনদের কাজে প্রশিক্ষন দিতে ফার্মগুলোকে ১হাজার পাউন্ড করে অর্থ সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি রয়েছে এই পরিকল্পনায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ