ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 August 2020, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

জাপানে বন্যা-ভূমিধসে ৫০ জনের প্রাণহানি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: জাপানের দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ কিউশুতে ভারী বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট ভূমিধস ও বন্যায় অন্তত ৫০ জন মারা গেছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গত শনিবার থেকে এই বৃষ্টি শুরু হয়। আজ মঙ্গলবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বন্যা ও ভূমিধসে আটকে পড়া মানুষকে উদ্ধার করতে জরুরি সেবা সংস্থাগুলো ব্যাপক উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। তবে আরও মুষলধারে বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।খবর রয়টার্সের।

দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত কুমামোটো অঞ্চলে ৪৯ জন মারা গেছে। এছাড়া অন্য ফুকুওকাতে আরও একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া এখন পর্যন্ত অন্তত এক ডজন লোক নিখোঁজ।

দেশটির স্থানীয় সরকারের তথ্যানুসারে, মৃত ৫০ জনের মধ্যে ১৪ জন কুমা নদীর কাছের একটি নার্সিংহোমের। নার্সিংহোমটি ভয়াবহ বন্যায় প্লাবিত হয়।

এদিকে দেশটির আবহাওয়া সংস্থা (জেএমএ) ফুকুওকা, নাগাসাকি ও সাগা এলাকা এবং কিউশু অঞ্চলের কয়েকটি অংশে ভারি বৃষ্টিপাতের ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে। এবং জনগণকে তাদের নিরাপত্তার লক্ষ্যে সব ধরনের সম্ভাব্য ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

আবহাওয়া সংস্থা ওইসব এলাকার বাসিন্দাদের মঙ্গলবার সকাল থেকে বন্যা ও ভূমিধসের মতো দুর্যোগের ব্যাপারে উচ্চ মাত্রায় সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

সোমবার বিকেল অবধি কুমামোটো, মিয়াজাকি এবং কাগোশিমা অঞ্চল থেকে ১ লাখ ১৭ হাজার পরিবারের ২ লাখ ৫৪ হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে জনগণের জীবন বাঁচাতে এবং ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তায় সরকারি কর্মকর্তাদের প্রতি যথাসাধ্য প্রচেষ্টা চালানোর আহ্বান জানান।

তিনি দেশজুড়ে সকল মানুষকে সজাগ থাকার এবং স্থানীয় সরকারসমূহের কাছ থেকে সর্বশেষ তথ্য জেনে নেয়ার জন্যও আহ্বান জানান।

এছাড়া বন্যাকবলিতদের উদ্ধারে দেশটিতে ১০ হাজারের বেশি পুলিশ, সেনা ও উদ্ধার কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। 

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ