ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 August 2020, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

নখ দেখে রোগ চেনা যায়

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: আমরা যখন আমাদের হাত ও পা ব্যবহার করি তখন আমাদের আঙুলের নখ, পায়ের নখগুলো সংবেদনশীল ত্বককে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। নখ কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা আমরা তখনই বুঝতে পারি যখন আমরা তাদের কোন একটিকে হারাই!

বেশিরভাগ লোক তাদের নখগুলো নিয়ে খুব একটা চিন্তা করে না বা এজন্য সময় ব্যয় করে না, শুধু এগুলোকে সাজানো বা রঙ করা ছাড়া। বিশেষ করে মেয়েরা নখের সৌন্দর্যের দিকে বিশেষ দৃষ্টি রেখে থাকি।কিন্তু আমরা কি জানি এই নখের মধ্যেই লুকিয়ে আছে কত রহস্য! আপনি জেনে আশ্চর্য হবেন, নখ দেখেই মানুষের স্বাস্থ্যের অবস্থা সম্পর্কে জানা যায়! আজকে আমরা নখের মধ্যে লুকিয়ে থাকা এমনি কতগুলো লক্ষণ দেখে স্বাস্থ্যের ৭টি অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারব।সত্যি! ‌'চোখ বা মুখ যেমন মনের অভিব্যক্তি প্রকাশ করে, তেমন আমাদের নখগুলোও আমাদের স্বাস্থ্যের প্রকৃত অবস্থার বার্তা বহন করে থাকে।বলতে পারেন নখ হলো মানুষের স্বাস্থ্যের খোঁজ-খবর নেয়ার জানালা বা উইন্ডো।যেহেতু নখগুলো ক্রমাগত বৃদ্ধি পায়, তাই তারা শরীরের পুষ্টি, অসুস্থতা, আঘাত এবং এমনকি আপনার সাস্থ্যের লুকানো গুরুতর অবস্থার বৃত্তান্তও সরবরাহ করে।

হাতের নখগুলোর রঙের পরিবর্তন আপনার স্বাস্থ্যের জন্য সতর্কবার্তা বহন করতে পারে এবং এই সতর্কবার্তা উপেক্ষা না করে পরীক্ষা করা উচিত। যদি আপনার নখগুলো রঙ পরিবর্তন করে থাকে বা সেগুলোতে রঙিন দাগ পান (আঘাতপ্রাপ্ত বা থেতলানো বাদে), আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলুন।

যদি আপনার নগ্ন নখগুলোর রঙ অস্বাভাবিক মনে হয় তবে আরও ভালভাবে লক্ষ্য করুন।

আপনার হাতের নখগুলোর দিকে একবার ভালভাবে তাকান। আপনি যদি এই ৭টি অবস্থার কোনও একটি দেখতে পান তবে আপনার ডাক্তারের সাথে দেখা করা উচিত। ৭ নাম্বার অবস্থাটি লক্ষ্য করা আপনার জীবন বাঁচাতে পারে। যদি আপনি সেই ভীতিকর রঙটি লক্ষ্য করেন, তবে আপনার দেরি না করে চিকিৎসকের কাছে ছুটে যা্ওয়া উচিত!

১. সাদা বা ফ্যাকাশে নখ

খুব ফ্যাকাশে নখ অপুষ্টি ও রক্তাল্পতার লক্ষণ (পর্যাপ্ত আয়রন নয়) হতে পারে বা এটি লিভারের রোগ বা কনজেসটিভ হার্ট ফেইলুরের লক্ষণও হতে পারে।

নখের আগার দিকে গাঢ় দাগ বা চক্রবেড়সহ সাদা রঙের নখ লিভারের সমস্যা যেমন হেপাটাইটিসের সঙ্কেত বহন করে। নখের আগার দিকে ফ্যাকাশে লাল বা গোলাপী রঙ জমা বার্ধক্য থেকে শুরু করে লিভার, হার্ট বা কিডনি রোগ কিংবা ডায়াবেটিসের লক্ষণ পর্যন্ত বহন করতে পারে।

২. নীল বা হলুদ নখ

নীল নখের অর্থ আপনার শরীর খুব ভালভাবে অক্সিজেন পরিবহন করছে না। আপনার মারাত্মক ফুসফুস বা হার্টের অবস্থা থাকতে পারে। আপনার যদি পাশাপাশি বুকে ব্যথা হয় তবে আপনার ডাক্তারের সাথে ফোন করুন জরুরী স্বাস্থ্য সেবার এই নম্বরে- ১৬২৬৩ ।

হলুদ নখ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে একটি ছত্রাকের সংক্রমণ থাকে। কখনও কখনও, হলুদ নখ গুরুতর থাইরয়েড রোগ, দীর্ঘস্থায়ী ব্রঙ্কাইটিস, ডায়াবেটিস, লিম্ফেডিমা বা সোরিয়াসিস সহ ফুসফুসের রোগের লক্ষণ হতে পারে। কিছু ক্ষেত্রে, হলুদ নখ জন্ডিসের লক্ষণ হতে পারে, যা একটি বিপজ্জনক লিভারের অবস্থা। হলুদ নখ অনেক সময় শুকনো ও ভঙ্গুর হতে পারে।

৩. তরঙ্গায়িত বা ছোট গর্তযুক্ত নখ

নখগুলো যদি প্রান্তের দিকে তরঙ্গায়িত হয়, তাহলে তা সোরিয়াসিস বা প্রদাহজনক আর্থ্রাইটিস নির্দেশ করতে পারে।

কখনও কখনও নখের নীচে ত্বক লালচে বাদামি হবে।

গর্তযুক্ত নখগুলো রিটারের সিনড্রোমের মতো সংযোজক টিস্যু ব্যাধি নির্দেশ করতে পারে।এটি বিশেষত্ব, বাত বিশেষ। বিক্রিয়াশীল আর্থ্রাইটিস, যা আগে রিটারের সিনড্রোম হিসাবে পরিচিত ছিল, এটি প্রদাহজনক আর্থ্রাইটিসের একটি রূপ যা দেহের অন্য অংশে (ক্রস-প্রতিক্রিয়াশীলতা) সংক্রমণের প্রতিক্রিয়া হিসাবে বিকশিত হয়।

পাশ থেকে পাশ চলতে থাকে এমন তরঙ্গায়িত অবস্থা ছত্রাকের আঘাত বা তীব্র জ্বরে গুরুতর অসুস্থতার ফলে ঘটতে পারে। এটি অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, পেরিফেরিয়াল ভাস্কুলার ডিজিজ বা জিঙ্কের ঘাটতির লক্ষণও হতে পারে। এটি চিকিৎসককে দেখানো উচিত।

৪. নখ বিকৃতি (Nail Clubbing)

আপনি যদি দেখেন আঙুলের শেষের দিকে নখগুলি ধীরে ধীরে প্রশস্ত হয়ে প্রান্তের দিকে বেঁকে যাচ্ছে, তাহলে এটা আপনার রক্তে অক্সিজেন কম ও ফুসফুসের রোগের লক্ষণ হতে পারে।

নখের ক্লাবিং বা বিকৃতি প্রদাহজনক পেটের রোগ, কার্ডিওভাসকুলার বা লিভার ডিজিজ এবং এইডস রোগেরও লক্ষণ হতে পারে।

এটি জেনেটিক হতে পারে আবার বায়ু সংক্রমণের লক্ষণ হতে পারে। যেহেতু নখ বিকৃতি কিছু গুরুতর অবস্থার সাথে জড়িত তাই এটি পরীক্ষা করে দেখা উচিত।

৫. চামচ নখ

যদি আপনার নখগুলি নরম হয় এবং চামচের মতো এক ফোঁটা তরল ধরে রাখতে পারে তাহলে বুঝতে হবে যে, আপনার শরীরে আয়রনের আধিক্য অথবা ঘাটতি রয়েছে। কেমোথেরাপি বা রেডিয়েশন থেরাপি, পেট্রোলিয়ামের সংস্পর্শে বা আঘাতের পরেও নখের এ অবস্থা দেখতে পাবেন। এগুলি জেনেটিকও হতে পারে আবার উচ্চ উচ্চভূমি বা পাহাড়ে বাস করা লোকদের মধ্যেও দেখা যায়।তবে নখের এ অবস্থা অপুষ্টি, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, ভিটামিন বি এর অভাব এবং অন্যান্য অসুস্থতার লক্ষণ নির্দেশ করে জড়িত। এগুলো যদি ট্রমা বা পারিবারিক ইতিহাসের সাথে বিকশিত না হয়, তাহলে আপনার উচিত নখগুলো পরীক্ষা করে দেখা।

৬. আঙ্গুলের ফোলা (স্ফীত) ভাঁজ

আঙুলের নখের চারপাশে স্ফীত লাল ত্বক একটি সংক্রমণ হতে পারে।আপনার হাত বা পা এপসোম সল্ট এবং উষ্ণ পানিতে কয়েকবার ভিজিয়ে দেখুন। যদি লালভাব পরিষ্কার না হয় তবে আপনি কোনও ডাক্তারকে দেখাতে পারেন। সংক্রমণটি ব্যাকটিরিয়াজনিত হতে পারে বা খামিরের সংক্রমণের কারণে হতে পারে।ফোলা ত্বক কায়িক শ্রম বা অতিরিক্ত ডিশ ওয়াশিং থেকে আসতে পারে। তবে এটি লুপাসের মতো কানেক্টিভ টিস্যু ডিসঅর্ডারের লক্ষণ হতে পারে।

৭. নখের নীচে কালো দাগ

নখের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত কালো রেখাগুলো জেনেটিক হতে পারে, আবার এটি খুব বিপজ্জনকও হতে পারে।এগুলো আফ্রিকান বংশোদ্ভূত লোকদের মধ্যে বিশেষ করে বিশোর্ধ বয়সীদের মধ্যে  সাধারণভাবে দেখা যায়, যা বিপজ্জনক নয়।যদি আপনার নখের কাছে কোনও ধরণের ট্রমা বা আঘাতজনিত অসুস্থতা থাকে তবে এই কালো দাগ বা রেখা দেখা দিতে পারে যা অবশেষে বড় হয়। কেমোথেরাপির ওষুধ বা বিটা-ব্লকারগুলির মতো কিছু ওষুধের কারণেও নখে কালো দাগ তৈরি হতে পারে।

তবে গাঢ় কালো রেখাগুলো এইচআইভি, লুপাস এবং গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনাল পলিপ ইত্যাদি রোগের মারাত্মক অবস্থার সংকেতও দিতে পারে। এছাড়া এগুলো মেলানোমার লক্ষণও হতে পারে।মেলানোমা হলো ত্বকের ক্যান্সারের সাথে সম্পর্কিত একটি মারাত্মক টিউমার।

উপসংহার  

যেহেতু আপনি সম্ভবত এখনই আপনার নখগুলি পরীক্ষা করে দেখছেন, তাই আপনার নখের রং, আকার এবং গুণমান যাঁচাই করুন। ডগায় আলতো চাপুন এবং ছেড়ে দিন। গোলাপী অবিলম্বে ফিরে আসবে - এটি আপনার সঞ্চালন পরীক্ষা করার দ্রুত উপায়। যদি তা না হয় তবে আপনার চিকিৎসকের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলাপ করতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ