ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 August 2020, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

চলতি বছর বাজারে আসছে না ভারতীয় করোনা ভ্যাকসিন

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: করোনার এই দুর্যোগে ভারতবাসীকে হতাশ করলো ভারত বায়োটেক। কেননা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বলছে, ২০২১ সালের আগে করোনার প্রতিষেধক বাজারে আসার কোনও সম্ভাবনা নেই। করোনার প্রতিষেধক হাতে পেতে ২০২১ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। 

যদিও বায়োটেকের টার্গেট ছিল চলতি বছরের ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে করোনার প্রথম টিকা বাজারে আনার, কিন্তু এখন তারা হাল ছেড়ে দিয়েছে।তারা বলছে, প্রাণঘাতী করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করতে ২০২১ সাল পর্যন্ত সময় লাগবে। খবর আনন্দবাজার ও নিউজ এইটটিনের।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, সাধারণ পরিস্থিতিতে কোনও ভ্যাকসিনের প্রি-ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সম্পন্ন করতে  ছ’মাস সময় লাগে। মানবদেহে ভ্যাকসিনের প্রভাব পরীক্ষার জন্যেও বেশ কয়েক মাস সময় দিতে হয় বলে চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের অনেকেরই মত। কিন্তু ভারতের করোনা মহামারি পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুতর হওয়ায় তা মোকাবিলার জন্যই যতটা সম্ভব দ্রুত এটি বাজারে আনতে কোম্পানিটিকে পুরোদস্তুর সরকারি আনুকূল্য দেয়া হচ্ছিল।কিন্তু সে আশা পূরণ হচ্ছে না। ইন্ডিয়ান একাডেমি অব সায়েন্স জানিয়েছে, করোনার প্রতিষেধক বাজারে আনার ক্ষেত্রে তড়িঘড়ি করা উচিত হবে না। এতে করে মানব দেহে বিরুপ প্রতিক্রিয়ারও আশঙ্কা রয়েছে।

ভারতে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তীরির জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে আরও ছ’টি ভারতীয় প্রতিষ্ঠান। কিন্তু এই দৌড়ে এগিয়ে আছে হায়দারাবাদের ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড ও আহমেদাবাদের জাইডাস ক্যাডিলা।

ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন ও জাইডাস ক্যাডিলার তৈরি জাইকভ-ডি এই দু’টি করোনা প্রতিষেধক ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই)-র থেকে হিউম্যান ট্রায়ালের অনুমতি পেয়েছে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ