ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 August 2020, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

দেশে করোনায় একদিনে প্রাণ হারালেন আরো ৫৫ জন, মোট মৃত্যু ২ হাজার ছাড়ালো

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: দেশে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দুই হাজার পেরিয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান ৫৫ জন। ফলে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৫২ জনে।এছাড়া করোনাভাইরাসে দেশে নতুন করে আরো দুই হাজার ৭৩৮ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।এর ফলে প্রথম করোনা শনাক্তের ১২০তম দিনে এসে দেশে মোট এক লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। আর  করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনার ১১০ দিনের মাথায় দুই হাজার জন মারা গেলেন।এর আগে গত ১০ জুন করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছিল। সেই হিসাবে ৮৫ দিনে এক হাজার মৃত্যু হলেও পরের একহাজার মানুষ মারা গেলেন মাত্র ২৫ দিনে।

এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায়  সুস্থ হয়েছেন আরো দুই হাজার ৬৭৩ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৭০ হাজার ৭২১ জন।

রোববার (৫ জুলাই) বেলা আড়াইটায় করোনাভাইরাস সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনের আয়োজন করা হয়। সেখানে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৮টি ল্যাবে আরো ১৩ হাজার ৯৬৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে ১৩ হাজার ৯৮৮টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো আট লাখ ৪৬ হাজার ৬২টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও দুই হাজার ৭৩৮ জনের মধ্যে। ফলে শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল এক লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ৫৫ জন। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৫২ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক হাজার ৯০৪ জন। এতে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৭২ হাজার ৬২৫ জনে।

২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৫৭ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৪ দশমিক ৭২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৬ শতাংশ।

প্রতিবারের মতো করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে সবাইকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট দিকনির্দেশনা বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহার এবং শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। তবে সাম্প্রতিক সময়ে দেশে নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ