ঢাকা, বৃহস্পতিবার 3 December 2020, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় জামায়াতের গভীর উদ্বেগ

সংগ্রাম অনলাইন : দেশের উত্তরাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান বিবৃতি দিয়েছেন। 

মঙ্গলবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, প্রবল বর্ষণ এবং পাহাড়ি ঢলের পানিতে অনেক নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং কিছু নদ-নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে দেশের উত্তরাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হয়েছে। ইতোমধ্যে লালমনিরহাট, নীলফামারী, রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, নেত্রকোনা, সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুমিল্লায় বন্যার বিস্তৃতি ঘটেছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে জামালপুরে ১ জন মারা গিয়েছে। সিলেট, সুনামগঞ্জ ও জামালপুরে লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছে। বাড়ি-ঘর, জমির ফসল ডুবে যাওয়ায় মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় কৃষকগণ হাঁস-মুরগি ও গবাদি পশু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে। 

তিনি বলেন, করোনার প্রাদুর্ভাবে অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের কারণে দেশের মানুষ এমনিতেই নানা সংকটের মধ্য দিয়ে জীবন-যাপন করছে। এর মধ্যে আকস্মিক বন্যার ফলে মানুষ চরম অসহায় হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। বন্যা কবলিত অঞ্চলে খাদ্য, আশ্রয়, খাবার ও বিশুদ্ধ পানির অভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। গণমাধ্যমে খবর প্রচারিত হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে বন্যা কবলিত এলাকার এখনো কোনো খোঁজ নেয়া হয়নি এবং সাহায্য-সহযোগিতাও প্রদান করা হয়নি। 

তিনি বলেন, আমরা মনে করি বন্যা কবলিত এলাকার জনগণের মধ্যে ত্রাণ-সামগ্রী পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকারের পক্ষ থেকে জরুরি ভিত্তিতে এখনই ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন। আবহাওয়া অফিসের তথ্যানুযায়ী আগামী কয়েক দিনে পানি আরো বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি হওয়ার পূর্বেই দুর্যোগ মোকাবিলায় যথাযথ প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমরা সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানাচ্ছি। 

তিনি আরো বলেন, দেশের ভয়াবহ এ দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে সাহায্য নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দল-মত-নির্বিশেষে সকলেরই এগিয়ে আসা উচিত। প্রয়োজনীয় সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য তিনি সমাজের বিত্তশালী ব্যক্তিবর্গ বিশেষ করে সংশ্লিষ্ট এলাকার বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সকল দায়িত্বশীল ও সর্বস্তরের জনশক্তির প্রতি আহবান জানান। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ