শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

চীনা শিবির গুঁড়িয়ে দিতে সীমান্তে ক্ষেপণাস্ত্রসহ ৪৫ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে ভারত

সংগ্রাম ডেস্ক : এবার  ভারতের ভূখণ্ড থেকে চীনা সেনাদের স্থাপনা উচ্ছেদে কঠোর পদক্ষেপ নিল মোদি সরকার। গালওয়ান উপত্যাকায় ভারতের অভ্যন্তরে চীনাদের সেনাদের গড়ে তোলা ১৬টি সেনা স্থাপনা গুড়িয়ে দিতে ওই এলাকায় ভারী অস্ত্রসহ ৪৫ হাজার সেনা পাঠিয়েছে দিল্লী।
জানা গেছে, প্রায় ৯ কিলোমিটার এলাকা দখল করে এসব স্থাপনা বানিয়েছে চীনা সেনারা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে ভারত।
ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি রোববার এ খবর প্রকাশ করেছে। খবরে স্যাটেলাইটে ধরা পড়া চীনা স্থাপনার ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। এদিকে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, গেল ২২ থেকে ২৬ জুনের মধ্যে তোলা ছবি বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গালওয়ানে ১৫ জুন সংঘর্ষের স্থানে অবকাঠামো তৈরি করেছে চীন। বলা হচ্ছে, ১৪ নম্বর টহল পয়েন্টটি ভারতের নিয়ন্ত্রণে ছিল বলে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। কিন্তু সেই স্থানে একের একের পর অবকাঠামো তৈরি করে সেনা বাড়াচ্ছে বেইজিং।স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গোয়েন্দাদের দাবি, গালওয়ান নদী বরাবর প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে প্রায় ১৩৭ মিটার অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছে চীন। বলা হচ্ছে, ওই এলকায় দীর্ঘদিন থেকে টহল দিচ্ছে ভারতীয় বাহিনী।
খবরে বলা হয়েছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর কালো ত্রিপলের ছবি সম্প্রতি ধরা পড়েছে উপগ্রহ চিত্রে। সেই ত্রিপল চীনা বাহিনীর; প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এই সম্ভাবনায় জোর দেওয়া হয়েছে। এনডিটিভির হাতেও এসেছে সেই চিত্র। বলা হচ্ছে, সেই সেক্টরে ৯ কিলোমিটারের মধ্যে প্রায় ১৬টি শিবির চিহ্নিত করেছে স্যাটেলাইট ছবি। সামরিক স্তরের আলোচনায় চীন বাহিনী সরানোর প্রতিশ্রুতি দিলেও সেটা খাতায়-কলমে। শুধু তাই নয় প্রকৃত সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ এলাকায় ব্যাপক সামরিক সম্ভার বাড়াচ্ছে বেইজিং।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ