বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

অবৈধ শাসকগোষ্ঠী  আ'লীগ জনগণের ওপর ফ্যাসিবাদী জুলুম চালাচ্ছে -------বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার: জাতিসংঘ ঘোষিত নির্যাতিতদের সমর্থনে আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, জাতিসংঘ ঘোষিত নির্যাতিতদের সমর্থনে আন্তর্জাতিক দিবসে আমি বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বের নির্যাতিত ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের প্রতি জানাই গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা। যুগে যুগে মানুষ বিভিন্ন রাষ্ট্রের স্বৈরশাসক ও নিষ্ঠুর একনায়ক এবং একদলীয় শাসনের দ্বারা মানুষ নির্যাতিত হয়েছে এবং এখনও হচ্ছে। এখনও বিশ্বব্যাপী কোন না কোন অঞ্চলে ভাষা, বর্ণ, জাতি ও সম্প্রদায় নিয়ে সংঘাত চলছে। বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে সংখ্যাগুরুরা সংখ্যালঘুদের ওপর চালাচ্ছে নির্যাতন। রাজনৈতিক ভিন্ন মতের ওপর অসহিষ্ণু  শাসকরা চালাচ্ছে নির্দয় অত্যাচার। 

মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণের ওপর এখন ফ্যাসিবাদী জুলুম চালাচ্ছে। আর এক্ষেত্রে গুম ও বিচার বহির্ভূত হত্যাই হচ্ছে শাসকগোষ্ঠীর প্রধান অস্ত্র। যেহেতু জনগণের নিকট সরকারের কোন জবাবদিহিতা নেই, সেহেতু গণতান্ত্রিক সকল প্রতিষ্ঠানকে হাতের মুঠোয় নিয়ে একদলীয় অপশাসনের জগদ্দল পাথর জনগণের বুকের ওপর চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। গণমাধ্যমকে হুমকি ও ভয় দেখিয়ে এবং নির্যাতন করে কব্জা করার অপচেষ্টা চলছে। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এখন সম্পূর্ণরুপে বিপন্ন। দেশে এখন দু:সময় চলছে। রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, মানবাধিকার কর্মী, রাজনৈতিক বিশ্লেষক যারা গণতন্ত্রের পক্ষে সোচ্চার তারা সরকারী জুলুমের শিকার হয়ে কেউ গুম হচ্ছেন, পঙ্গু হচ্ছেন, অথবা চিরদিনের জন্য হারিয়ে যাচ্ছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশে আমরা এখন এক গভীর অন্ধকারের মধ্যে বাস করছি। বিশ^ব্যাপী কোভিড-১৯ এর মরণঘাতি আগ্রাসনের মধ্যেও বিএনপি নেতাকর্মীসহ ভিন্ন মত পোষণকারীদের বিরুদ্ধে গুম, মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারের হিড়িক থেমে থাকছেনা, বরং সরকারের জুলুমের গতি পূর্বের মতোই চলমান আছে। জাতির সকল অর্জন ও এগিয়ে যাওয়া এখন অন্ধকারে হারিয়ে যেতে বসেছে। জুলুম-নির্যাতনের ধারাবাহিকতায় গণতন্ত্রের ওপর সর্বোচ্চ আঘাত হানা হচ্ছে। এই নৈরাজ্যের অমানিশা আমাদের দুরীভূত করতেই হবে। ‘গণতন্ত্রের মা’ বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ অসত্য ও বানোয়াট মামলায় প্রতিহিংসামূলক সাজা দিয়ে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছিল। কারাবন্দী অবস্থায় সুচিকিৎসার অভাবে তাঁর জীবনকে সংকটাপন্ন করে তোলা হয়েছে।আন্তর্জাতিক নির্যাতন বিরোধী দিবসে দেশের গণতন্ত্রকামী জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান বিএনপি মহাসচিব।

বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু ১৬ জুলাই : কয়েক দফা সময় বাড়িয়ে অবশেষে আগামী ১৬ জুলাই থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম চালু করার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। সংগঠনটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ অতিমারির প্রেক্ষিতে বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম, সাংগঠনিক গঠন ও পুনর্গঠন কার্যক্রম ২৫ জুন পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছিল। এই স্থগিতাদেশ আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নির্দেশিত স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি এবং সামাজিক দূরত্ব বিধি অনুসরণ করে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম, সাংগঠনিক গঠন ও পুনর্গঠন কার্যক্রম আগামী ১৬ জুলাই থেকে পর্যায়ক্রমে সীমিত আকারে শুরু করা হবে।

এর আগে গত ২২ মার্চ দলটির পক্ষ থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিতের কথা জানানো হয়। পর্যায়ক্রমে ২৫ মে, ২৫ জুন এবং ২৫ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত রেখে সীমিত পরিসরে কার্যক্রম শুরুর ঘোষণা দেয়া হলো।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ