সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

হাসপাতালে ঘুরে ঘুরে অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেলেন সদ্য ‘মা’ হওয়া তরুণী

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা : প্রথমে মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতাল, এর পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সেখান থেকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সে মৃত্যু হয় এক তরুণীর। মাত্র ১সপ্তাহ আগে ওই তরুণী এক কন্যা সন্তান জন্ম দেন।
শুক্রবার (১২ জুন) সকাল থেকে তিন হাসপাতাল ঘুরে আইসিইউ না পেয়ে বিকেল তিনটার দিকে মারা যান বলে স্বজনরা জানান। এ মৃত্যুর জন্য মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালকে দায়ী করেছেন মৃতের দুলাভাই।
মৃত তরুণী ইসরাত জাহান উষ্ণ কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যয়নরত। সে সোনারগাঁওয়ের বারদী ইউনিয়নের আলমদী গ্রামের ওয়াহিদ ভূইয়ার মেয়ে।
মূলত শ্বাসকষ্টের কারণে তার মৃত্যু হয়। করোনায় আক্রান্তের ভয়ে হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বজনরা।
নিহত ইসরাত জাহান উষ্ণের দুলাভাই বুয়েটের সিনিয়র সহকারী লাইব্রেরীয়ান মো. ইসমাইল হোসেন জানান, ৬ জুন (শনিবার) সিজারের মাধ্যমে মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন উষ্ণ। পরে ১১ জুন (বৃহস্পতিবার) তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়। সেখান থেকে সোনারগাঁওয়ের আলমদীর বাড়িতে গেলে শুক্রবার সকালে তার খিচুনি উঠে, মুখ দিয়ে লালা বের হতে থাকে। দ্রুত তাকে পুনরায় মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে আইসিইউর নাম দিয়ে কোন চিকিৎসা দেয়নি। সেখান থেকে উষ্ণকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। ঢামেকেও আইসিইউ খালি না থাকায় তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সে সে মারা যায়।
ইসরাত জাহান উষ্ণ বারদী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৬ সালে ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়। বর্তমানে সে কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যয়নরত ছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ