ঢাকা, বুধবার 15 July 2020, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

১৪০জন বেড়ে চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৩৫৩৯জন

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় ৫৩০টি নমুনা পরীক্ষায় ১৪০জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে শহরে ৮৬জন ও গ্রামে ৫৪জন। বুধবার রাতে চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এতে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫৩৯জন।

বিআইটিআইডি : ১৫৮ নমুনা পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়ে ২৯ জনের। এরমধ্যে চট্টগ্রাম নগরের বাসিন্দা ৫ জন, উপজেলার ২৪ জন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ : চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে পরীক্ষা করা হয় ২২৬ টি নমুনা পরীক্ষা। করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসা ৭৫ জনের মধ্যে নগরের বাসিন্দা ৭৪ জন এবং উপজেলায় ১ জন।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারী ইউনিভার্সিটি : বুধবার চট্টগ্রাম ভেটেরিনারী ইউনিভার্সিটি ল্যাবে ১৪৬ টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসে ৩৭ জনের। ৭ জন বাদে অন্যরা উপজেলার বাসিন্দা। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

সিভিল সার্জন অফিস জানিয়েছে, উপজেলার মধ্যে বোয়ালখালী : ১১ জন, চন্দনাইশ : ৯ জন, সীতাকুন্ড : ৮ জন,  রাউজান : ৭ জন, আনোয়ারা : ৬ জন, হাটহাজারী : ৫ জন, রাঙ্গুনিয়া : ৪ জন, সাতকানিয়া : ২ জন, পটিয়া : ১ জন ও ফটিকছড়ি : ১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত ১৭হাজার ৭শ’ ৫০জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে পজেটিভ  এসেছে ৩ হাজা ৫শ’ ৩৯টি।  মারা গেছেন ৮৫জন। সুস্থ হয়েছেন ২৪৮জন।

করোনায় দুই জনের মৃত্যু : চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া দুই জনই নারী। তাদের বয়স ৫০ ও ৫৬ বছর। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে একজন এবং সকাল ৭টায় অন্যজন মৃত্যুবরণ করেন চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ)। জানা যায়,৫০ বছর বয়সী নারী নগরের পাঁচলাইশ এলাকার এবং ৫৬ বছর বয়সী নারী জামালখান এলাকার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আবদুর রব জানান, হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন করোনা পজেটিভ দুই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তাদের দুইজনেরই উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস ছিল। এদের মধ্যে একজন গত ২৯ মে এবং অন্যজন ২ জুন হাসপাতালে ভর্তি হন। প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৫৩৯ জন। এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অন্তত ৮৫ জন। সুস্থ হয়েছেন অন্তত ২৪৮ জন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ