বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০
Online Edition

কক্সবাজারে বিজিবি’র সাথে বন্দুকযুদ্ধে পাঁচ মাসে ১৫ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার : কক্সবাজারে বিজিবি’র সাথে বন্দুকযুদ্ধে গত পাঁচ মাসে ১৫ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। খবর বিজিবির পিলখানা সূত্রের। সূত্র জানায়, কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন (৩৪ বিজিবি) এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় গত পহেলা জানুয়ারি হতে ৩১ মে পর্যন্ত চোরাচালান ও মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে বিজিবি টহলদল কর্তৃক ৪০,৭৫,৫২,১০০/- (চল্লিশ কোটি পঁচাত্তর লক্ষ বায়ান্ন হাজার একশত) টাকা মূল্যের ১৩,৫৮,৫০৭ পিস বার্মিজ ইয়াবাসহ ২৮৩ জন আসামী আটক করে।
মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’নীতি ঘোষণার প্রেক্ষিতে করোনা ভাইরাস এর মহামারির মধ্যেও বিজিবি তাদের নিজ কর্তব্যে অটুট থেকে দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় বিশেষ মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন (৩৪ বিজিবি) এর বাইশফাঁড়ী বিওপি’র সদস্যগণ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মায়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে এমন সংবাদের ভিত্তিতে বাইশফাঁড়ী বিওপি’র একটি চৌকস আভিযানিক টহল দল সীমান্ত পিলার ৩৬/২এস হতে আনুমানিক ০১ কিঃ মিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৩ নং ঘুমঘুম ইউনিয়নের ৪০ পরিবার তিন রাস্তার মোড়ের পশ্চিম দিকে চেয়ারম্যানের গোদা লেক সংলগ্ন টিলার উপর অবস্থান গ্রহণ করে। পরবর্তীতে আনুমানিক সাড়ে ৫টার ঘটিকায় ৮/১০ জনের ০১টি দল পাহাড়ী এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের দিকে আসতে দেখে তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে তাদের হাতে থাকা অস্ত্র-সস্ত্র দিয়ে টহল দলকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি বর্ষণ শুরু করে। এ সময় টহল দল তাদের জান-মাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলী করে। এক পর্যায়ে অজ্ঞাতনামা ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পার্শ্ববর্তী পাহাড়ী জঙ্গলের ভিতর পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহল দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে অজ্ঞাতনামা ০১ (এক) জন ব্যক্তিকে গুলীবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় এবং তার পার্শ্বে ইয়াবা সদৃশ বস্তু ও দেশীয় তৈরী একনলা বন্দুক পড়ে থাকতে দেখে। পরবর্তীতে আহত ব্যক্তির জীবন রক্ষার্থে চিকিৎসার জন্য উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। গুলীবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কুতুপালং বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিকদের শিবিরে বসবাসরত রোহিঙ্গা নাগরিক বলে জানায়। এ গোলাগুলীর ঘটনায় ১ জন বিজিবি সদস্য আহত হয়।
পুলিশ নিহতের সুরতহাল রিপোর্ট করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
ঘটনাস্থল হতে বার্মিজ ইয়াবা আনুমানিক ৮০,০০০ পিস (যার আনুমানিক মূল্য ২,৪০,০০,০০০/- টাকা)। দেশীয় তৈরী একনলা বন্দুক ১টি, বন্দুকের কার্তুজ ২ রাউন্ড গুলী উদ্ধার করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ