ঢাকা, শনিবার 4 July 2020, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

করোনাভাইরাস: উর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেই আজ কাজে ফিরছে বাংলাদেশের মানুষ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: অঘোষিত লকডাউন চলার সময়ও বাংলাদেশে অনেক জায়গাতেই মানুষকে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে দেখা যায়নি।

বাংলাদেশে সংক্রমণের মাত্রা উর্ধ্বমুখী থাকলেও টানা ৬৬ দিন পর রবিবার থেকে খুলছে সব ধরণের কার্যক্রম।

এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে সব ধরণের সরকারি-বেসরকারি অফিস, গণপরিবহন এবং জনসাধারণের চলাচলে কঠোরতা উঠিয়ে নেয়ার মতো সিদ্ধান্তের অনুমোদন।

তবে এ সম্পর্কিত বিজ্ঞপ্তি বলছে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া এই সময়ের মধ্যে রাত ৮টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না।

এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে গত ২৬শে মার্চ থেকে 

সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার।

এর পর কয়েক দফায় এই ছুটি বাড়িয়ে সবশেষ ৩০শে মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।

রবিবার থেকে খুলছে সব ধরণের অফিস। আর গণপরিবহন চালু হচ্ছে সোমবার থেকে।

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, গণপরিবহনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে যানবাহনে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের কথা বলা হয়েছে। যার জের ধরে বাস ভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর ঘোষণা এসেছে। তবে এরই মধ্যে গণপরিবহনের বাড়তি ভাড়া নির্ধারণ নিয়ে সমালোচনা দেখা দিয়েছে।

এদিকে, এমন এক সময়ে সব কিছু খুলে দেয়া হচ্ছে যখন করোনাভাইরাস শনাক্ত এবং মৃত্যুহার দুটোই বেড়েছে।

শনিবার করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয় ১,৭৬৪ জন। এই সময়ে মারা যায় ২৮ জন।

আর এর আগের দিন শুক্রবার সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ২৫শর বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয় বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

গত কিছুদিনে বাংলাদেশে নমুনা পরীক্ষা বৃদ্ধির পাশাপাশি কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী শনাক্তের সংখ্যাও বেড়েছে।

এ নিয়ে বাংলাদেশে মোট ৪৪ হাজার ৬০৮ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। আর মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬১০।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে ১৮৫টি দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তার মধ্যে ৮২টি দেশ পুরোপুরি বা আংশিকভাবে লকডাউন প্রয়োগ করেছে।

কিন্তু এই লকডাউনে পুরো অর্থনীতি অচল হয়ে পড়ার কারণে বিশ্বের অনেক দেশ লকডাউন শিথিল করার কথা ভাবতে শুরু করে। এরই মধ্যে স্পেন, জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়াসহ কিছু দেশ বেশ কিছু কড়াকড়ি শিথিল করেছে।

-বিবিসি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ