ঢাকা, বুধবার 15 July 2020, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

৩০তম স্প্যানে দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর ৪.৫ কিলোমিটার

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: দেশব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেও এগিয়ে চলেছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণের কাজ। শনিবার সকালে সেতুর ৩০তম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে ৬.১৫ কিলোমিটার পদ্মাসেতুর ৪.৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের জানান, শনিবার সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে সেতুর জাজিরা প্রান্তের ২৬ ও ২৭ নম্বর খুঁটির ওপর স্প্যানটি বসানো হয়।

পদ্মা সেতুর ২৬ ও ২৭ নম্বর খুঁটি এলাকায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি ফেরি রুটের চ্যানেল এলাকায় ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, এ কারণেই এই দুটি খুঁটি নির্মাণে বিলম্ব হয়। ড্রেজিং করে পাশ দিয়ে চ্যানেল করে দিয়ে তবেই খুঁটি দুটি তৈরি করা হয়।

মধ্য জুনে আরও একটি স্প্যান বসানো হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আগামী ২০ জুন সেতুর ৩১তম স্প্যান বসনোর সিডিউল ঘোষণা করা হয়েছে। এটি বসবে ২৫ ও ২৬ নম্বর খুঁটিতে।’

নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, ‘সেতুর ৩১তম স্প্যানটি স্থাপনের মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুটির সরাসরি জাজিরা প্রান্ত থেকে মাওয়ার অংশ স্পর্শ করবে এবং জাজিরার অংশে আর কোনো স্প্যান বাকী থাকছে না। আর মাওয়ার অংশে স্প্যান বসানো বাকি থাকছে ১০টি। তবেই সেতুর পূর্ণ অংশ অর্থ্যাৎ ৬.১৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে কাজ শুরু হওয়া ৬.১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি দ্বিতল হবে। যার ওপর দিয়ে সড়কপথ ও নিচের অংশে থাকবে রেলপথ। মূলসেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে চীনের ‘সিনো হাইড্রো করপোরেশন’।

-ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ