ঢাকা, বুধবার 15 July 2020, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছেন ট্রাম্প

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে যাচ্ছে তার দেশ। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সংস্থাটির পদক্ষেপ নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে গতকাল (শুক্রবার) এমন ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ট্রাম্প বলেন, “চলতি মাসের প্রথম দিকে আমি যে দাবি জানিয়েছিলাম সে অনুযায়ী এ সংস্থা সংস্কার করতে ব্যর্থ হয়েছে।” শুক্রবার হোয়াইট হাউজে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প অভিযোগ করেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সম্পূর্ণরূপে চীনের পুতুলে পরিণত হয়েছে। তিনি জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে প্রতিশ্রুত অর্থ অন্যান্য বৈশ্বিক স্বাস্থ্যজনিত সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে ব্যয় করা হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রস আধানম গ্রেব্রেয়াসুস

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে টানাপড়েন চলছে ট্রাম্প প্রশাসনের। করোনা মহামারি নিয়ে সংস্থাটির পদক্ষেপে অসন্তুষ্ট তার প্রশাসন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পসহ মার্কিন অনেক কর্মকর্তা বলছেন, চীনের একটি ল্যাবরেটরি থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তা নাকচ করেছে। এতে ট্রাম্প ক্ষুব্ধ হয়ে বলেছেন, আন্তর্জাতিক এ সংস্থাটি চীনা সংস্থায় পরিণত হয়েছে। এরপর তিনি এপ্রিল মাসে সংস্থাটিতে অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণা দিয়ে তীব্র সমালোচনার শিকার হন। বার্ষিক হিসাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় ৪০ কোটি ডলারের বেশি অর্থ দিয়ে থাকে আমেরিকা।

এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণার সমালোচনা করেছে দ্যা আমেরিকান মেডিক্যাল এসোসিয়েশন। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, এই সম্পর্ক ছিন্নের পেছনে কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। এতে বিশ্বজুড়ে করোনা মোকাবিলা আরো কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

ট্রাম্পের পদক্ষেপের সমালোচনা করেছেন মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিটিও। কমিটির চেয়ারম্যান সিনেটর লামার আলেক্সান্ডার বলেন, “বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভুলগুলো অবশ্যই খতিয়ে দেখা উচিৎ। তবে সে সময় এখন না। বিশ্বজুড়ে বিদ্যমান স্বাস্থ্য সংকট প্রশমিত হওয়ার পর।” - পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ