ঢাকা, রোববার 29 November 2020, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

ইসলামী কল্যাণরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হলেই সত্যিকার অর্থে ঈদের আনন্দ উপভোগ সম্ভব

সংগ্রাম অনলাইন : ঈদুল-ফিতর উপলক্ষে রাজধানী ঢাকাবাসী সহ সবার প্রতি ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল এবং কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ।

শুক্রবার দেয়া যৌথবার্তায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, এক মাস সিয়াম সাধনা শেষে খুশীর সওগাত নিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর আমাদের দ্বারে সমাগত। ঈদুল ফিতর হলো মাসব্যাপী  সিয়াম সাধনার সমাপনী অনুষ্ঠান। এ পবিত্র রমযান মাসেই আল্লাহ মানবজাতির হেদায়াতের জন্য পবিত্র কুরআন নাযিল করেছেন। রমযানের দাবি হলো কুরআনের আলোকে একটি তাকওয়া ভিত্তিক ইসলামী সমাজ কায়েম করা। রাসূল (সাঃ) এবং খোলাফায়ে রাশেদীনের প্রতিষ্ঠিত রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার আদলে একটি ইসলামী কল্যাণরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হলেই মানুষ সেখানে সত্যিকার অর্থে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে সক্ষম হবে। মাহে রমজানের সিয়াম সাধনা ও ঈদুল ফিতর আমাদেরকে সমাজে ন্যায় ও ইনসাফ কায়েম করতে উদ্বুদ্ধ করে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতি ভাইরাস কোভিড-১৯ বা করোনার ভয়াবহ সংক্রমণে মানুষ যখন দিশেহারা ঠিক সেই মুহূর্তে পবিত্র ঈদুল ফিতর আমাদের দ্বারে সমাগত। এমতাবস্থায় আমরা অত্যন্ত ভারাক্রান্ত হৃদয়ে রাজধানী ঢাকাবাসী সহ সবার প্রতি ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি, ঈদ মোবারক। বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ায় এবারের ঈদের আনন্দ অন্য সব সময়ের চেয়ে ভিন্নতর। ভয়াবহ এই দুর্যোগে বাংলাদেশের পরিস্থিতি প্রতিনিয়ত আরও অবনতির দিকে যাচ্ছে। লকডাউনের কারণে প্রান্তিক ও নিম্ন আয়ের মানুষ অবরুদ্ধ ও কর্মহীন হওয়ায় মানবিক বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে। সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাগুলোর অব্যবস্থাপনা, পর্যাপ্ত চিকিৎসার অভাব ও খাদ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অভাবে দেশের সাধারন মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন। দেশ ও জাতির এই ক্রান্তিকালে আদর্শবাদী ও গণমুখী রাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে জামায়াতে ইসলামীও সাধারণ মানুষের দুর্দশা লাঘবে ব্যাপক ভিত্তিক ঈদসামগ্রী বিতরণ ও ত্রাণতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। সেইসাথে এই বিপর্যয়কর পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে এবারের ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করার জন্য আমরা রাজধানী সর্বস্তরের জনগনসহ সবার প্রতি উদাত্ত আহবান জানাচ্ছি। 

শুভেচ্ছা বার্তায় নেতৃদ্বয় আরও বলেন, ঈদ মুসলমানদের জীবনে নিয়ে আসে অনাবিল আনন্দ। আমাদের জাতীয় জীবনেও ঈদুল ফিতরের গুরুত্ব অপরিসীম। ঈদের উৎসবে মুসলিম উম্মাহ শোষণ ও বঞ্চনামুক্ত বিশ্ব গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় গ্রহণ করে। ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করতে দেশের দুঃস্থ, দরিদ্র ও সঙ্গতিহীন মানুষের প্রতি ভ্রাতৃত্ব ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে সমাজের বিত্তবান মানুষরা ঈদের আনন্দকে সকলের মাঝে ছড়িয়ে দেবেন বলেও নেতৃবৃন্দ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সেইসাথে ঈদের সালাত আদায় ও ঈদ উদযাপনে স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব  নির্দেশিকা মেনে চলার জন্য সকলকে আহবান জানান। নেতৃবৃন্দ করোনার এই মহামারি থেকে পরিত্রাণ এবং ঘুর্নিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের দ্রুত ক্ষয়-ক্ষতি কাটিয়ে উঠার তৌফিক কামনা করে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নিকট বিশেষ সাহায্য কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ