শনিবার ৩০ মে ২০২০
Online Edition

রাজধানীতে মাদক ও জাল টাকাসহ নারী আটক

স্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানাধীন মাটিকাটা এলাকা থেকে ৯৯৫ পিস ইয়াবা, ৮৪ গ্রাম হেরোইন এবং জাল টাকাসহ এক নারী মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব-৪ এর একটি দল। র‌্যাব ৪ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম সজলের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে গ্রেফতারকৃত ওই নারী মাদক কারবারির নাম স্বপ্না আক্তার। এদিকে আটক স্বপ্না আক্তারকে গত বৃহস্পতিবার কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মাদক কারবারি স্বপ্নাকে দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় ক্যান্টনমেন্ট থানায় মাদক ও জাল টাকা উদ্ধারের ঘটনায় করা মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। ক্যান্টনমেন্ট থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার মুন্সি নুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এরআগে বুধবার ক্যান্টনমেন্ট থানাধীন মাটিকাটা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯৯৫ পিস ইয়াবা, ৮৪ গ্রাম হেরোইন এবং জাল টাকাসহ স্বপ্না আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মাদক ও জাল টাকা উদ্ধারের ঘটনায় দুটি মামলা করা হয়।

র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি সাজেদুল ইসলাম সজল বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, স্বপ্না আক্তার মাদকদ্রব্য ও জাল টাকা সংগ্রহ করে বিশেষ কায়দায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নিজস্ব চক্রের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। 

মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজিতে মাটিকাটা এলাকায় গড়ে তুলেছেন নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী। যার কারণে মানুষ ভয়ে তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করতে সাহস পেত না। গ্রেফতার স্বপ্নার বিরুদ্ধে কেউ অভিযোগ করলেই তাকে ভয়ভীতি দেখানো হতো। তিনি বলেন, শীর্ষ সন্ত্রাসী কিলার আব্বাসের সাথে স্বপ্না আক্তারের নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে। স্বপ্না একই এলাকার মানুষজনের কাছে আব্বাস গ্রুপের সদস্য হিসেবেও পরিচিত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ