বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০
Online Edition

পিছিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

পিছিয়ে যেতে পারে ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। চলতি বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজন হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে সূচির যে বিপর্যয় ঘটেছে, সেই ধাক্কা কাটিয়ে নির্ধারিত সময়ে আর আসরটি মাঠে নেয়া সম্ভব নয় বলেই মনে করছে বৈশ্বিক ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসি। আগামী সপ্তাহে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অস্ট্রেলিয়া আসর পিছিয়ে দেয়ার ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

আসর পিছিয়ে দেয়ার সম্ভাবনা থেকেই সৃষ্ট হয়েছে একটি প্রশ্নের। যার যথাযথ উত্তর খুঁজে বেড়াচ্ছে আইসিসি ও আয়োজক অস্ট্রেলিয়া। প্রশ্নটি হচ্ছে, কবে তাহলে আয়োজন করা হবে ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঝুলে যাওয়া আসর। ২০২১ সালেই যে আছে আরেকটি একই ফরম্যাটের বিশ্বকাপ। অবশ্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার হাতে আছে একাধিক বিকল্প-

প্রথমত, ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি/মার্চ মাসে একটি সম্ভাব্য সূচি ফাঁকা আছে। সেসময়ে বিশ্বকাপ আয়োজন হলে আবার টি-টোয়েন্টির একঘেয়েমিতে পেয়ে বসতে পারে দর্শকদের। কারণ তখন এপ্রিলের আইপিএল আবার পিছিয়ে দিতে হবে। তাতে আবার ইংল্যান্ডের ভারত সফর ঝুঁকিতে পড়ে যাবে। সিরিজটির সম্প্রচার স্বত্ব স্টার ইন্ডিয়ার, যারা আইসিসির সব আয়োজনেরও সম্প্রচার ভাগীদার। বিশ্বকাপ এবং ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ সূচির ঝামেলায় পড়ুক তা কিছুতেই চাইবে না প্রতিষ্ঠানটি।

দ্বিতীয়ত, বিসিসিআইকে রাজি করিয়ে ২০২১ সালে বিশ্বকাপ আয়োজন করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। ২০২১ বিশ্বকাপের স্বাগতিক ভারত। সেক্ষেত্রে তাদের ২০২২ সালে পিছিয়ে দিতে হবে ২০২১ আসর। কিন্তু কী যুক্তিতে ভারত আসর পিছিয়ে দেবে? সেটাও এক বড় প্রশ্ন!

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ