ঢাকা, শনিবার 30 May 2020, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৬ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ধেয়ে আসছে ‘আমফান’, উপকূলে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘আমফান’ দিক পরিবর্তন করে বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে আসছে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট এই ঘূর্ণিঝড় ইতোমধ্যে তীব্র শক্তি সঞ্চয় করে 'সুপার সাইক্লোনে' পরিণত হয়েছে। আঘাত হানতে পারে খুলনা ও চট্টগ্রামের মধ্যবর্তী উপকূলে। উপকূলীয় জেলা, দ্বীপ ও চরসমূহকে তাই ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে আবহাওয়ার ১৮ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

আবহাওয়া-বিদ মোঃ. বজলুর রশিদ বলেন, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেতের পরিবর্তে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ, ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

এদিকে এই ঝড়ের কারণে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি। ঘূর্ণিঝড় অতিক্রমকালে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম জেলা সমূহ এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণসহ ঘন্টায় ১৪০-১৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে অতিসত্ত্বর নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ