মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সবার আগে ক্রিকেটে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক: ইতোমধ্যেই ইউরোপে ফিরেছে ফুটবল। এবার অস্ট্রেলিয়ায় ফিরছে ক্রিকেট। করোনা মহামারির পর এই প্রথম বাইশ গজে নামতে চলেছেন ক্রিকেটাররা। জুনেই হবে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। ক্লাব ক্রিকেট দিয়েই ব্র্যাডম্যানের দেশে নতুন রূপে ফিরবে ক্রিকেট। ৬ জুন থেকে ডারউইন ও জেলা ক্রিকেট প্রতিযোগিতার মৌসুম দিয়েই হবে এর সূচনা। তবে করোনা থেকে সুরক্ষিত থাকতে বেশ কিছু নিয়মকানুন মেনে চলতে হবে ক্রিকেটারদের। যেমন, বল চকচকে করার জন্য থুতু কিংবা ঘাম ব্যবহার করা যাবে না। করোনা পরবর্তী সময়ে যে এই নিয়মে বদল আনা হবে, সে ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। এবার সেই নিয়মই চালু হচ্ছে প্রতিযোগিতা মূলক ক্লাব ক্রিকেটে। তাহলে বিকল্প উপায়? ডারউইন ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট নাকি কয়েকটি বিকল্প পথ ভেবেছে। যার মধ্যে একটি হল মোমজাতীয় জিনিস দিয়ে আম্পায়ারই বল চকচকে করার দায়িত্ব নেবেন। তবে ম্যাচ আয়োজনের জন্য এই এটাই সঠিক পরিস্থিতি, ক্রিকেটারদের সুরক্ষা নিয়ে সমঝোতা করা হচ্ছে না। এ বিষয় নিশ্চিত করে নর্দান টেরিটরি সরকারের কাছে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট জমা দিতে হবে ক্লাবগুলিকে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও সেসব খতিয়ে দেখবে। ডারউইন ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট প্রধান ল্যাচনাল বলেন, 'কীভাবে ক্রিকেটকে ফেরানো সম্ভব তার যথাসাধ্য চেষ্টা করছে আইসিসি। প্রতিনিয়ত সমস্ত বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। আমরা নিশ্চিত, ক্লাব ক্রিকেটের জন্য নয়া গাইডলাইন আমরা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার থেকে পেয়ে যাব। বলে মোমজাতীয় বস্তু ব্যবহার অনুমতি দেওয়া হয় কি না, সেটাও দেখার।'বল চকচকে করা ক্রিকেটের একটি বড অংশ। অজি পেসার প্যাট কামিন্স ও জোস হ্যাজলউডও জানিয়েছিলেন, এই নিয়মে রাশ টানলে ব্যাট আর বলের মধ্যে ব্যালেন্স রাখা যাবে না। তবে থুতু বা ঘামের বিকল্প কী হতে পারে, তা এখনও চূড়ান্ত করেনি বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। যদিও আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট ফিরলে অনেক প্রশ্নেরই উত্তর মিলবে বলে মনে করছে ক্রিকেট মহল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ