সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ত্রাণ বিতরণে যেই অনিয়ম করবে দলীয় পরিচয়ে হলেও রেহাই পাবে না -ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ত্রাণ সহায়তা কর্মসূচির তালিকা প্রণয়নে কোনো ধরনের অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না।
তিনি বলেন, ‘ত্রাণ সহায়তা কর্মসূচির তালিকা প্রণয়নে কোনো ধরনের অনিয়ম সরকার বরদাস্ত করবে না। ত্রাণ বিতরণে যেই অনিয়ম করবে দলীয় পরিচয়ে হলেও রেহাই পাবে না।’
গতকাল শনিবার রাজধানী ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। এ সময়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফি, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আশরাফ তালুকদার, সাবেক প্রচার সম্পাদক আক্তার হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সড়ক পরিবহন মন্ত্রী সংসদ ভবনস্থ তার সরকারি বাসা থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সীমাবদ্ধতা থাকা স্বত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশ সফলভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তাই, ত্রাণ সহায়তা কর্মসূচির তালিকা প্রণয়নে কোনো ধরনের অনিয়ম সরকার বরদাস্ত করবে না।
তিনি বলেন, যারা ভাসমান, ঘর নেই, খোলা আকাশের নিচে বসবাস করে তাদের খুঁজে খুঁজে তালিকা করে ঈদের আগেই ত্রাণ সাহায্য দেয়া হবে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদকে সামনে রেখে মানুষের শহর থেকে গ্রামে যাওয়ার প্রবণতা পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলতে পারে। তাই, পরিস্থিতি অবনতিশীল যাতে না হতে পারে সেজন্য শপিংমল, ফেরিঘাটসহ বিভিন্ন পয়েন্টে ভিড় তৈরি করা থেকে বিরত থাকুন।
তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে প্রকারান্তরে নিজেদের এবং চারপাশের মানুষের জীবনের গভীর অমানিশা ডেকে আনবে, এভাবে চলতে থাকলে দুর্যোগের অন্ধকারাচ্ছন্ন অতিক্রমের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তাই, আমাদের সবাইকে শতর্ক থাকতে হবে।
অসহায় মানুষকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে সংকটের শুরু থেকেই দলীয় নেতা-কর্মীরা জীবনবাজি রেখে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আপনারা এ কার্যক্রম অব্যাহত রাখুন। যাতে দেশের মানুষ না খেয়ে কষ্ট না পায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ