বৃহস্পতিবার ০৬ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ, কর্মবিরতি ও মহাসড়ক অবরোধ

গাজীপুর সংবাদদাতা : গাজীপুরে শতভাগ বেতন ভাতা পরিশোধের দাবীতে শনিবার কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ, কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট করেছে। এসময় দু’টি কারখানার শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
গাজীপুর শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকার ও স্থানীয়রা জানান, গাজীপুর সিটি কপোর্রেশনের টেক নগরপাড়াস্থিত আলফা ড্রেস পোশাক কারখানার শ্রমিকরা গত কয়েকদিন ধরে কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের এপ্রিল মাসের পাওনা বেতন ভাতা পরিশোধের দাবী জানিয়ে আসছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষ একাধিকবার আশ্বাস দিয়েও শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধ না করায় তাদের মাঝে অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার সকালে ওই কারখানার শ্রমিকরা এপ্রিল মাসের বেতন ভাতা পরিশোধের দাবীতে কারখানা গেইটে এসে জড়ো হয়ে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ শুরু করে। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও কর্তৃপক্ষ আন্দোলনরতদের দাবী মেনে না নেওয়ায় তারা উত্তেজিত হয়ে উঠে। একপর্যায়ে শ্রমিকরা কারখানার পার্শ্ববর্তী ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের উপর অবস্থান নিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। এতে মহাসড়কের উভয়দিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এসময় পুলিশের মধ্যস্থতায় কারখানার মালিক পক্ষের সঙ্গে শ্রমিক প্রতিনিধিদের আলোচনা হয়। আলোচনা শেষে আগামী ১৯ মে মোবাইল একাউন্টের মাধ্যমে শ্রমিকদের এপ্রিল মাসের বেতন ভাতা পরিশোধের ঘোষণা দিলে শ্রমিকরা আন্দোলন কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেয়। এতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় ও মহাসড়কে পুনরায় যানবাহন চলাচল শুরু হয়।
এদিকে পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরো জানান, একই দাবীতে মহানগরের গাছা এলাকার ঢাকা শক লিমিটেড কারখানার পোশাক শ্রমিকরা একদিন সকালে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোন আশ্বাস না পেয়ে শ্রমিকরা বিক্ষাব্ধ হয়ে উঠে। একপর্যায়ে শ্রমিকরা কারখানার পার্শ্ববর্তী ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের উপর অবস্থান নিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে। এতে মহাসড়কের উভয়দিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে কারখানার মালিক পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে। পওে মালিক পক্ষের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে শ্রমিকরা তাদেও আন্দোলন কর্মসূচি প্রত্যাহার করে। এসময় শ্রমিকরা রবিবার হতে কাজে যোগ দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে ওই এলাকা ত্যাগ করলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
গাজীপুর শিল্প পুলিশের ইন্সপেক্টর ইসলাম হোসেন জানান, এপ্রিল মাসের বেতন ভাতা পরিশোধের দাবীতে শ্রীপুরের জৈনা বাজারের লোহাই বাজার এলাকার এটিএস অটো সোয়েটার কারখানা, গাজীপুর সিটি কপোর্রেশনের কাশিমপুর এলাকার ডেল্টা নীট কম্পোজিট, সাইন বোর্ড এলাকার আরবিএইচ ফ্যাশন লিমিটেড ও মাষ্টারবাড়ি এলাকার ওয়ার্ক ফিল্ড নীট ওয়্যার লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিকরা শনিবার সকাল হতে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষ ও শ্রমিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এছাড়াও মহানগরীর বড়বাড়ি এলাকার লান্তা বু গ্রুপের লিবাস নীট ওয়্যার লিমিটেড কারখানার পোশাক শ্রমিকরা বেতন ভাতা পরিশোধসহ বিভিন্ন দাবীতে সকাল হতে কর্মবিরতি পালন শুরু করে। এদিন কারখানা খোলা থাকলেও শ্রমিকরা কাজে যোগ না দিয়ে কর্মবিরতি শুরু করে। একপর্যায়ে কিছু শ্রমিক তাদের দাবী দাওয়া নিয়ে বিজিএমইএ’র নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার জন্য ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ